প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাংসদ কাজী শহিদ ইসলামের অভিযোগ তদন্ত করছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়

তরিকুল ইসলাম : পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ভূয়া খবর বলে উড়িয়ে দিলেও কুয়েত থেকে পালিয়ে আসা সেই সংসদ সদস্যর অভিযোগ তদন্ত করছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, সংসদে না গেলেও এবার বিদেশ গমনের অনুমতি চেয়ে স্পিকারের কাছে আবেদন করেছেন দেশ-বিদেশের আলোচিত লক্ষ্মীপুর দুই আসনের সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপুল।

রোববার রাতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বিষয়টি জানার পর বিএমইটির মহাপরিচালক শামছুল আলমকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছি।

এই আইন প্রণেতার বিরুদ্ধে যখন এমন অভিযোগ তখন তিনি দেশ ত্যাগের চেষ্টা করছেন। যদিও তিনি ব্যবসায়িক কাজ দেখিয়ে কুয়েতেই যাবেন বলে উল্লেখ করে রোববার পিএস সোহেল এর মাধ্যমে আবেদনটি স্পিকারের দফতরে পাঠান। সংসদ অধিবেশন শেষে স্পিকার সেই আবেদনে স্বাক্ষর করেন বলে জানা গেছে।

কুয়েতে বাংলাদেশ মিশনের হেড অব চ্যান্সারি মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান বলছেন, ওই এমপিকে নিয়ে দেশটির সংবাদ মাধ্যমে রিপোর্ট প্রকাশের পর কুয়েত সিআইডিতে তারা তাৎক্ষণিক যোগাযোগ করেছেন।

কুয়েতের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) এ দাবি করছে এই সংসদ সদস্যসহ তিন জনের চক্রটি প্রায় ২০ হাজার বাংলাদেশিকে কুয়েতে পাঠিয়ে প্রায় ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা আয় করেছে।
যদিও সংসদ সদস্য গণমাধ্যমে দাবি করেছেন তাকে হেয় করতেই এমনটি করা হয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত