প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বহিষ্কৃতদের নাম প্রকাশ করতে ৫ দিনের আল্টিমেটাম সৈকতের

ওবায়দুর রহমান সোহান, ঢাবি প্রতিনিধি : আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে ভর্তি জালিয়াতের সাথে জড়িত অভিযোগে বহিষ্কৃত ৬৩ জনের নাম প্রকাশ না করলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অফিসে তালা ঝুলবে বলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরকে আল্টিমেটাম দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সদস্য তানবীর হাসান সৈকত। সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তিনি প্রক্টর অফিসে স্মারকলিপির মাধ্যমে প্রক্টরকে এ আল্টিমেটাম দেন তিনি।

জানা যায়, গত ৩০ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কর্তৃক ভর্তি জালিয়াতির কারণে ৬৩জন শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে। কিন্তু বহিষ্কৃতদের নাম প্রকাশে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান নাম প্রকাশে ইচ্ছুক থাকলেও অভিযোগ উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর নাম প্রকাশ করতে অনিহা প্রকাশ করছেন । পরে এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) সদস্য তানভীর হাসান সৈকত।

এ ব্যাপারে সৈকত বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বহিষ্কৃতদের নাম প্রকাশ করতে বলা সত্ত্বেও প্রকাশ করেনি প্রক্টর। এতে শিক্ষার্থীরা প্রক্টরকে ধিক্কার জানিয়েছে। কোন ভাবেই প্রক্টরের মত দ্বায়িত্বশীল জায়গায় দাঁড়িয়ে শিক্ষার্থীদের সাথে এই ধরনের প্রতারণা কাম্য নয়। যার দায়ভার সম্পূর্ণ প্রক্টরের। এতে করে শিক্ষাথীদের মধ্যে সন্দেহের দানা বেঁধেছে এবং শিক্ষাথীরা সরিষার ভেতরে ভূত দেখতে পাচ্ছে। বহিষ্কৃতদের নাম প্রকাশ না করা ইতিমধ্যেই জালিয়াতদের রক্ষার কৌশল হিসেবে শিক্ষার্থীরা বুঝে গেছে। তাই বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরকে পাঁচ দিনের সময় দেওয়া হয়েছে। অন্যতায় শিক্ষার্থীরা জানে কীভাবে ন্যায্য অধিকার আদায় করতে হয়। প্রয়োজনে প্রক্টর অফিসে তালা ঝুলবে। ‘

এদিকে বহিষ্কৃতদের নাম প্রকাশের বিষয়ে প্রক্টর বলেন, নৈতিক কারণে আমরা এই মুহূর্তে নাম প্রকাশ করতে পারছি না। তবে দ্রুত সময়ের মধ্যে, নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া অনুসরণ করে নাম প্রকাশ করা হবে।

সর্বাধিক পঠিত