প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জুনিয়রদের বিশ্বকাপে ১৭৫ কি.মি. গতিতে বোলিং করে আলোচনায় লঙ্কান যুবা (ভিডিও)

স্পোর্টস ডেস্ক : কয়দিন আগেই গতির ঝড় তুলে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এসেছিলেন পাকিস্তানি পেসার নাসিম শাহ। এবারে শ্রীলঙ্কান পেসার মাথিসা পথিরানা ভারতের বিপক্ষে একটি ১৭৫ কিলোমিটার গতির ডেলিভারিতে সবাইকে মুগ্ধ করেছেন। প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক অঙ্গনের বড় মঞ্চে এসেই চমক দেখিয়েছেন শ্রীলঙ্কান পেসার পথিরানা। শ্রীলঙ্কার ইতিহাসের অন্যতম সেরা পেসার লাসিথ মালিঙ্গার মতোই অনেকটা তার বোলিং অ্যাকশন। মালিঙ্গার বিদায় লগ্নে উদ্ভূত হওয়া এই পেসার যেন শুরুতেই তার আগমনী বার্তা দিয়ে রাখলেন! খবর ; ক্রিকটাইম।

চলমান অনুর্ধ ১৯ বিশ্বকাপের সপ্তম ম্যাচে ব্লুমফুন্টেনে মুখোমুখি হয় শ্রীলঙ্কা এবং ভারত। এই ম্যাচের এক পর্যায়ে শ্রীলঙ্কান পেস বোলার মাথিসা ১৭৫ কিমি গতিতে একটি ডেলিভারি করেন যা সবাইকে মুগ্ধ করে দেয়। ম্যাচের প্রথম ইনিংসের চতুর্থ ওভারের শেষ ডেলিভারিতে ঘটে এ ঘটনা। কিন্তু এটি ছিল একটি ওয়াইড বল। ভারতের ব্যাটসম্যান যশ্বস্বী জয়সুয়াল বলটি না খেলে ছেড়ে দেন। কিন্তু যখন বলের গতি স্পিডমিটারে দেখাচ্ছিলো তখন সবাই অবাক হয়ে সেটির দিকে তাকিয়ে ছিল।

বাস্তবিকভাবে একজন ১৭ বছরের তরুণের পক্ষে এই গতিতে বল করা অকল্পনীয়। যদিও আইসিসির কোনো অফিসিয়াল ঘোষণা আসেনি যে কোনো ধরনের ভুল গণনা হয়েছে। এছাড়া পথীরানার বোলিং অ্যাকশন কিছুটা লাসিথ মালিঙ্গার মতো হওয়ায় তাকে নিয়ে আলোচনা হয়েছিল।

বলটি করার সাথেসাথে পাকিস্তানের শোয়েব আখতারকে ছাড়িয়ে গিয়েছেন এই লঙ্কান তরুণ। সাবেক পাকিস্তানি গতিতারকা ২০০৩ সালে বিশ্বকাপের এক ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৬১.৩ কিমি গতিতে বল করেছিলেন। এতদিন ধরে এটিই ছিল সর্বোচ্চ গতির বল। প্রসঙ্গত, ম্যাচটিতে শ্রীলঙ্কাকে ৯০ রানের ব্যবধানে হারিয়েছে ভারত।

সর্বাধিক পঠিত