প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘শাকিব খানের মৌসুমে এটি সাহসের কাজ’

ডেস্ক রিপোর্ট  : ‘এখন ঈদের মৌসুম হচ্ছে শাকিব খানের মৌসুম। শাকিব খানের সিনেমার মৌসুম। অথচ তার এ মৌসুমে এমন একটি গল্পের ছবি মুক্তি দেয়াটা সাহসের কাজ। পরিচালক অনন্য মামুন এ সাহসী পদক্ষেপটি নিয়েছেন। এ জন্য অবশ্যই তাকে ধন্যবাদ। আমি মনে করি আবার বসন্ত ও এমন আরও গল্পের ছবিগুলো আমাদের সিনেমা অঙ্গনে বসন্তের সুবাতাস বয়ে আনবে।’ বলছিলেন দেশের বরেণ্য অভিনেতা তারিক আনাম খান। যিনি আসন্ন ঈদে মুক্তি প্রতিক্ষিত ‘আবার বসন্ত’র মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বলাকা সিনেমা হলে হয়ে গেলা অনন্য মামুন পরিচালিত ’আবার বসন্ত’ ছবির প্রিমিয়ার। প্রিমিয়ার শুরুর আগে গণমাধ্যমকর্মীদের সামনে ’আবার বসন্ত’ ঈদে মুক্তি দেয়া প্রসঙ্গে কথাগুলো বলেন দেশের শক্তিমান এ অভিনেতা।

অসম প্রেমের গল্প আবার বসন্ত। ছবিটির গল্পে ৬০ বছর পেরিয়ে আসা এক লোকের আবার বসন্তে ফেরার আকুতি ঝরে পড়া দেখানো হয়েছে বলে জানান ছবিটির পরিচালক। এতে পঞ্চাশোর্ধ বৃদ্ধার চরিত্রে অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান আর তার ২৫ বছরের প্রেমিকার চরিত্রে রয়েছে অর্চিতা স্পর্শিয়া।

ঢাকাই শোবিজের তারকাদের উপস্থিতিতে ঝলমল ছিলো প্রিমিয়ার অনুষ্ঠান। ছবির প্রাণ তারিক আনাম খান ও স্পর্শিয়া তো উপস্থিত ছিলেনই। ছিলেন ছবির অভিনেতা অভিনেত্রীরাও। ছবিটিতে অভিনয় না করেও কেবল বসন্তের টানে হাজির হয়েছিলেন চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক, নিরব, সাঞ্জু জন চিত্রনায়িকা আঁচল আঁখি, বিপাশা কবিরসহ আরও অনেকেই।

ছবিতে অর্চিতা স্পর্শিয়ার কাছে বসন্তের খোঁজ করতে গিয়ে সমাজ-সন্তানের কাছে প্রতিনিয়ত অপমানিত হন তারিক আনাম খান। যেতে হয় আদালত পর্যন্তও! তবে ছবিটিকে তারিক আনাম খান অসম প্রেমের গল্প বলতে নারাজ।

আবার বসন্ত আসলে সমাজের এমন কিছু মানুষের গল্প। যাদের আমরা মনে করি সমাজ থেকে তারা বাতিল হয়ে যাচ্ছেন। যে মানুষদের আমরা সমাজের বোঝা মনে করি। মনে করি, তাদের জীবনে বসন্ত বলে কিছু নেই। তাদেরই গল্প এটি। আমাদের সিনেমার যে খড়া চলছে, দর্শকদের যে খড়া চলছে। ঠিক এ সময়ে এ ধরনের ভিন্ন গল্পের ভিন্ন ভাবনার ছবি এলে সে খড়া হয়তো অচিরেই কেটে যাবে। বলেন, তারিক আনাম খান।

এদিকে প্রিমিয়ার শো’তে ‘আবার বসন্ত’ দেখার পর প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন দর্শকরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবিটির প্রশংসা করে দিচ্ছেন স্ট্যাটাসও।

‘আবার বসন্ত’ ছবিটি মূলত সিনেপ্লেক্স এবং এ ধরনের পরিবেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি লক্ষ্য নির্মাতা অনন্য মামুনের। কিছুদিন আগে সমকাল অনলাইনকে তিনি বলেন,‘আমাদের টার্গেট সিনেপ্লেক্সগুলো। এরবাইরে সিনেপ্লেক্সের মতো ভালো পরিবেশের কিছু হলেও আবার বসন্ত মুক্তি পাবে। কারণ, সিনেপ্লেক্সের মতো ভালো পরিবেশে বসে আবার বসন্ত দেখে মজা পাবেন দর্শক। সুন্দর পরিবেশে সুন্দর গল্প সত্যিই উপভোগ্য হবে বলে আমার বিশ্বাস। তাই আপাতত হল সংখ্যা নয় ভালো পরিবেশের হলগুলোতে মুক্তিই আমাদের লক্ষ্য।’

ছবিটির বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন মনিরা মিঠু,করবি মিজান, ইমতু রাতিশ, মুকিত, আনন্দ খালিদসহ অনেকেই। ছবিটি প্রযোজনা করেছে ট্যাম মাল্টিমিডিয়া। ডিজিটাল পার্টনার লাইভ টেকনোলজিস লিমিটেড।

সমকাল

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত