প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডাকসু ভিপি নূরের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

মুহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন, ঢাবি প্রতিনিধি : বগুড়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি ও বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নূরুল হক নূরসহ কয়েকজনের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে কোটা সংস্কার আন্দোলনের প্লাটফর্ম বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। সোমবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবির) রাজু ভাস্কর্যের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গা প্রদক্ষিণ করে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে গিয়ে শেষ হয় মিছিলটি।

মিছিল শেষে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে মানববন্ধন করেন তারা।

মানববন্ধনে ডাকসুর সমাজ সেবা বিষয়ক সম্পাদক আখতার হোসেন বলেন, নূরেরা কোনো হামলা মামলায় দমে যাওয়ার পাত্র না। তিনি বলেন, ডাকসু ভিপি নূরের উপর হামলা হওয়ার পরও ঢাবি কর্তৃপক্ষ কোনো বিবৃতি দেন নি। তিনি এইসময়ে বিগত দিনে যতগুলো হামলা হয়েছে তার বিচার দাবি করেন।

সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন বলেন, একের পর এক হামলা হলেও হামলাকারীদের কোনো বিচার না হওয়ায় তারা আরো সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়েই যাচ্ছে। লিখিত অভিযোগ দিলেও আমরা কোনো বিচার পাচ্ছি না। তিনি বলেন, ডাকসুর ভিপি উপর আঘাত করা মানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর আঘাত করা।

সংগঠনটির আহ্বায়ক হাসান আল মামুন বলেন, বারবার আমাদের উপর হামলা করা হয়েছে। আমরা এ পর্যন্ত কোনো বিচার পাইনি। আমরা ছাত্রলীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের কাছে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে তদন্ত করে বিচার দাবি করছি। নইলে ছাত্র সমাজকে নিয়ে আমরা কঠোর আন্দোলনে নামবো।

মানববন্ধন শেষে সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক আদিব আরিফ সাংবাদিকদের বলেন, ছাত্রলীগ নামের সন্ত্রাসীরা আমাদের সহ গতকাল যমুনা টিভির সাংবাদিকের উপরও হামলা করেছেন। তার ক্যামেরা ছিনিয়ে নিয়েছেন। ছাত্রলীগ এভাবে আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকারকে কেড়ে নিচ্ছে।

তিনি আরো জানান যখন আমরা বগুড়ায় হামলার পর আহতদের নিয়ে এ্যাম্বুেন্সে করে ঢাকায় আসতেছিলাম তখন সিরাজগঞ্জ পার হওয়ার পর একটি ট্রাক রং সাইটে গিয়ে আমাদের এ্যাম্বুলেন্সটিকে সরাসরি ধাক্কা দেয় এবং চালক অহমিকা করে জানায় ট্রাকটি সিরাজগঞ্জের পৌর মেয়র মোস্তাক সিরাজের। অতএব কিছু হবেনা। পরে আমরা সাথে সাথে পুলিশের আশ্রয় নিলে তারা ট্রাকটি আটকান এবং একটি মামলা লিখেন।

উল্লেখ্য , ২৬ মে বগুড়ার উডবার্ণ লাইব্রেরির সামনে ইফতার মাহফিলে অংশগ্রহণ করতে গেলে নুরুল হক নুরের উপর ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মীর হামলার অভিযোগ পাওয়া যায়। এতে বেশ কয়েকজন আহত হন। এর আগেরদিন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়ও ইফতার মাহফিলে নুরের উপর আক্রমণ চালায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত