প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিয়েতে লাখ টাকার বই পেয়ে চমকে গেলন পাত্র

আহমেদ শাহেদ : বিয়েতে যৌতুক দেয়া নেয়ার কুপ্রথা এখনো থেকে গেলেও পশ্চিমবঙ্গে এক বিয়ের আসরে সৃষ্টি হলো দারুণ এক দৃষ্টান্ত। যৌতুক নিতে না চাইলেও লাখ টাকার বই পেয়ে চমকে গিয়েছেন এক পাত্র।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, বিয়েতে যৌতুকের বদলে পাত্রকে লাখ টাকার বই উপহার দিল পাত্রীপক্ষ। যদিও পেশায় শিক্ষক পাত্র কোনো ধরনের যৌতুক নিতে আগ্রহী ছিলেন না। কিন্তু বিপুল পরিমাণ বই উপহার দেখে তিনি নিজেও চমকে গেছেন।

জানা যায়, পশ্চিমবঙ্গের সোনারপুরের বাসিন্দা সূর্যকান্ত বারিকের সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয় পূর্ব মেদিনীপুরের বাসিন্দা প্রিয়াঙ্কা বেজের। বিয়ে ঠিক হওয়ার সময়ই সূর্যকান্ত বলে দিয়েছিলেন তিনি কোনো রকম যৌতুক চান না।

কিন্তু বিয়ের দিন শ্বশুরবাড়ি পৌঁছে তিনি তো হতবাক। দেখেন বিয়ের আসরের প্রবেশপথে সাজিয়ে রাখা হয়েছে রাশি রাশি বই। সেখানে পরিচিত বইয়ের সঙ্গেও আছে বেশ কিছু দুষ্প্রাপ্য বইয়ের সংগ্রহও।

মোট এক লাখ রুপির বই ছিল বলে সূর্যকান্ত সংবাদমাধ্যমকে জানান, “আমি বই পড়তে ভালোবাসি। কিন্তু বিয়ে ঠিক হওয়ার সময় বলেছিলাম, আমি কোনো রকম যৌতুক নিতে চাই না। কিন্তু তা বলে এত বই উপহার পাব ভাবিনি।”

পাত্রী প্রিয়াঙ্কা বলেন, “এ রকম একজন স্বামী পেয়ে আমি গর্বিত। আমি জানতাম তিনি বই পড়তে ভালোবাসেন। আমিও ছোট থেকে বই পড়তে খুব ভালোবাসি এবং বই উপহার পেতাম। বাবা যখন আমাকে তার সিদ্ধান্তের কথা জানান, শুনেই আমি খুব খুশি হই।”

পাত্রীপক্ষ থেকে জানা গেছে, পাত্রকে দেয়া উপহারে ছিলো প্রায় ১০০০টি বই। কলকাতার কলেজ স্ট্রিটসহ কয়েকটি জায়গা থেকে এসব বই কেনা হয়েছে। যার মধ্যে রামকৃষ্ণ মিশনের বেশ কিছু বইও রয়েছে। সংগ্রহের মধ্যে রবীন্দ্রনাথ, বঙ্কিমচন্দ্র থেকে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় সবার বইই রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ