প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অর্থবছরের ৯ মাসে ১৬ হাজার ২৬৪ কোটি টাকার কৃষিঋণ বিতরণ করেছে ব্যাংকগুলো

রমজান আলী: কৃষিঋণের প্রবৃদ্ধির ভিত্তিতে চলতি অর্থবছর কৃষি ও পল্লি খাতে ২১ হাজার ৮০০ কোটি টাকা ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। যা এই অর্থবছরের পুরো সময়ের কৃষিঋণ বিতরণ লক্ষ্যমাত্রার ৭৪ দশমিক ৬১ শতাংশ। আগের অর্থবছর এই লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২০ হাজার ৪০০ কোটি টাকা। গত অর্থবছরের প্রথম ৯ মাসে কৃষিঋণ বিতরণ হয়েছিল ১৬ হাজার ২১৪ কোটি ১৭ লাখ টাকা, যা ওই অর্থবছরের পুরো সময়ে কৃষিঋণ বিতরণ লক্ষ্যমাত্রার ৭৯ দশমিক ৪৮ শতাংশ। সেই হিসেবে গত অর্থবছরের তুলনায় চলতি অর্থবছরের প্রথম ৯ মাসে কৃষিঋণ বিতরণ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে পিছিয়ে রয়েছে ব্যাংকগুলো।

জানা গেছে, প্রতিবার অর্থবছরের শুরুতে কৃষি ও পল্লি­ঋণ বিতরণ-সংক্রান্ত নীতিমালা ঘোষণা করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর আগেই ব্যাংকগুলো নিজেরাই তাদের কৃষিঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে বাংলাদেশ ব্যাংককে অবগত করে। তবে প্রতিটি ব্যাংকের জন্যই তাদের মোট ঋণের অন্তত দুই শতাংশ কৃষি খাতে বিতরণের নির্দেশনা রয়েছে।

আগে কোনো ব্যাংক লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হলে অনর্জিত অংশের পুরোটাই বিনা সুদে এক বছরের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকে জমা রাখতে হতো। তবে গত অর্থবছর এ বিধানে শিথিলতা এনে অনর্জিত অংশের তিন শতাংশ বিনা সুদে কেদ্রীয় ব্যাংকে রাখতে হচ্ছে। তাছাড়া শিল্প খাতসহ অন্যান্য খাতে নিজেদের মতো করে সুদহার নির্ধারণ করতে পারলেও কৃষিতে বাংলাদেশ ব্যাংক নির্ধারিত ৯ শতাংশের বেশি সুদ নিতে পারে না ব্যাংকগুলো। এসব কারণে কৃষিঋণ বিতরণে অনীহা দেখায় বেসরকারি ও বিদেশি অনেক ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ তথ্যে দেখা যায়, সর্বশেষ মার্চ মাসে দুই হাজার ১৫০ কোটি ৪৩ লাখ টাকার কৃষিঋণ বিতরণ করেছে ব্যাংকগুলো। ফেব্রুয়ারি মাসে বিতরণ হয়েছিল দুই হাজার ১২ কোটি ৫২ লাখ টাকা। গত বছরের মার্চে কৃষিঋণ বিতরণ ছিল এক হাজার ৬৯৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা এবং গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে বিতরণ ছিল এক হাজার ৮১৮ কোটি ২৫ লাখ টাকা। সেই হিসেবে গত দুই মাসে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় কৃষিঋণ বিতরণ বেড়েছে।

আলোচ্য ৯ মাসে কৃষিঋণ আদায়ও বেড়েছে। চলতি অর্থবছরের প্রথম ৯ মাসে বকেয়া কৃষিঋণ আদায় হয়েছে ১৭ হাজার ১৪ কোটি টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে কৃষিঋণ আদায় হয়েছিল ১৫ হাজার ৩৯৪ কোটি ৬৪ লাখ টাকা।

ব্যাংক কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, চলতি বোরো মৌসুমে কৃষকদের চাহিদা পূরণে অর্থবছরের নভেম্বর মাসের পর থেকে কৃষিঋণ বিতরণ বাড়াতে থাকে ব্যাংকগুলো। কোনো কোনো ব্যাংক তাদের সারা বছরের কৃষিঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রার সমপরিমাণ ঋণ এই ৯ মাসেই বিতরণ করেছে বলেও জানিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত