প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা হবে, বললেন মঈন খান

অনলাইন ডেস্ক : কারাবন্দী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে ঠান্ডা মাথায় আন্দোলন করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান। তিনি বলেন, কারাবন্দী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে ভবিষ্যতে তার নেতৃত্বে একটি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে এ দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা হবে।

বুধবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির স্বাধীনতা হলে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম নামে বিএনপি সমর্থক এক সংগঠনের উদ্যোগে “৩০ ডিসেম্বর এবং অতঃপর” শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যের আগে বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মাদ রহমাতুল্লাহসহ সভায় বক্তব্য রাখা নেতারা কারাবন্দী খালেদা জিয়ার মুক্তি, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণার দাবি জানান। এ ছাড়া জ্যেষ্ঠ নেতাদের ভূমিকার সমালোচনা করেন তারা।

তাদের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে মঈন খান বলেন, কারাবন্দী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে ভবিষ্যতে তার নেতৃত্বে একটি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে এ দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা হবে। আজকে যে আলোচনা হয়েছে পাশাপাশি আত্মসমালোচনা হয়েছে তাতে তিনি সন্তুষ্ট। আত্মসমালোচনা অবশ্যই প্রয়োজন। ভুল করলে অবশ্যই স্বীকার করতে হবে। যেসব ভুল নিজেদের ভেতরে বললে সমাধান হয় সেটা প্রকাশ্যে বলা যাবে না। আগামী দিনে আন্দোলনের পরিকল্পনা করতে হবে বাস্তবসম্মত। সেই বাস্তবতা মনে রাখতে হবে।

তিনি বলেন, রাস্তায় নেমে পাঁচ/সাতজন মানুষ কথা বলা যাবে সে পরিবেশ নেই। এই যে বাস্তবতা তা প্রত্যেককে বুঝতে হবে। দেশের জনগণ আইয়ুবের শাসন, ইয়াহিয়ার শাসন ও স্বৈরাচার এরশাদের শাসন দেখেছে। ’৫২র ভাষা আন্দোলনে চারজন শহীদ দেশের মানুষ মনে রেখেছে। এই চারজন জীবন দিয়ে সারা পাকিস্তানে তোলপাড় করে দিয়েছিল। আইয়ুব খানের সময় রাজশাহীতে ড. জোহা এবং এরশাদের সময় জিপিও মোড়ে একটি মাত্র জীবন গিয়েছিল। বিগত ১০ বছরে বর্তমান স্বৈরশাসকের আমলে কত হাজার মানুষ জীবন দিয়েছে? আজকের সরকারের সঙ্গে পূর্ববর্তী শাসকদের যে গুণগত ব্যবধান আছে সেটা ভুললে চলবে না।

মঈন খান বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে হুট করে রাস্তায় নেমে দুটো স্লোগান দিলাম, গুলি খেয়ে প্রাণ হারালাম। এতে করে কোন লাভ হবে না। এই সরকারকে কাবু করতে হলে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করতে হবে। আজকে এই পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণের একটি মাত্র উপায়, শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় এই সরকারকে বিদায় দিতে হবে।

নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরামের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরামের সাধারণ সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত