প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পলাশবাড়ী-গাইবান্ধা সড়ক ফোরলেন উন্নীতকরণ কাজ করতে বৈধ-অবৈধ স্থাপনা অপসারন অভিযান

আরিফ উদ্দিন: সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের সড়ক প্রশস্তকরণের কাজ চলছে। উপজেলা সদরের সাথে জেলা সদরের যোগাযোগের ক্ষেত্রে ফোর লেন সড়কের কাজ নির্বিঘ্ন করতে চলছে বৈধ-অবৈধ স্থাপনা অপসারণ অভিযান।

পলাশবাড়ী উপজেলা সদরসহ ঘোষিত দূরত্ব পর্যন্ত ১৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে পূর্ব চিহ্নিতকরণ স্থাপনা সমূহ সড়ে নিতে গণ মাইকিং করে সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

মাইকিংয়ের ফলে ব্যক্তি মালিকানাধীন মার্কেট, দোকানপাট, ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্ব প্রতিষ্ঠান সমূহ ভাঙচুরের হিড়িক পড়ে যায়। রাত-দিন নেই-চলছে ভাঙচুরের কাজ।

এসব স্থাপনা অপসারনে চলছে চরম লেবার সংকট। তবুও থেমে নেই। যে যার-যার মত আপ্রাণ চেষ্টা করছে এসব অপসারনের কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে। শেষ হয়েও যেন শেষ হচ্ছেনা।

এদিকে সওজ বিভাগের পূর্ব ঘোষিত গণমাইকিংয়ের নির্দেশ অনুযায়ি অনেকেই তাদের স্থাপনা সড়াতে গড়িমসি বা বিলম্ব করছেন।তাদের স্থাপনা সড়াতে ‘সওজ’ বিভাগ সোমবার সকাল থেকেই তাদের বিভাগীয় নিজস্ব জনবলসহ যান্ত্রিক যানবাহনের মাধ্যমে এসব অপসারন কাজ শুরু ররেছেন।

সড়ক বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলীর (পলাশবাড়ী) কার্যালয় এসব নিয়ন্ত্রনে সার্বক্ষণিক তদারকি অব্যাহত চালিয়ে যাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে সওজ বিভাগের দায়ীত্ব সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বললে তারা জানান দেশ ও দশের স্বার্থে, এলাকার যোগাযোগা ব্যবস্থার উন্নতিকল্পে এসব অপসারণ জরুরি হয়ে পড়েছে। যারা তাদের স্থাপনা সড়াতে উদাসিন তাদের বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনের মাধ্যমে কাজের অগ্রগতির সমন্বয় করা হবে।

সরকারি কাজ সম্পাদনে সামনে যে কোন বাধা আসুক না কেন? তা মোকাবেলা করেই সড়ক উন্নয়নের কাজ সম্পাদন করা হবে। সড়ক নির্মান কাজের সার্বিক অগ্রগতি থেমে নেই। গাইবান্ধার প্রবেশদ্বার পলাশবাড়ী জিরো পয়েন্ট চৌমাথা মোড় থেকে গাইবান্ধা সদর পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ চলমান কাজ অব্যাহত রয়েছে। ভাঙচুর করে এসব স্থাপনা অপসারণকালে এসময় সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের পদস্থ দায়ীত্বশীল কর্মকর্তা, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশসহ সংশ্লিষ্টরা সাথে ছিলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত