প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাবনায় পূর্ববিরোধের জেরে খুন হলেন কৃষকলীগ নেতা

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনার চর শিবরামপুর এলাকায় প্রতিপক্ষের লোকজন কৃষকলীগ নেতা খাইরুল ইসলামকে (৪২) কুপিয়ে হত্যা করেছে । বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত খাইরুল সদর উপজেলার চর শিবরামপুর গ্রামের মৃত সাবের আলীর ছেলে। তিনি ঠিকাদারী করতেন ও হেমায়েতপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড কৃষকলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার সময় চর শিবরামপুর স্লুইসগেটের পাশে জলাশয়ে মাছ ধরতে যান খাইরুল ইসলাম। এ সময় পূর্ববিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়। কারা, কী কারণে খাইরুলকে হত্যা করেছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

পাবনা সদর থানা পুলিশের ওসি ওবাইদুল হক জানান, ধারণা করা হচ্ছে স্থানীয় আধিপত্য নিয়ে বিরোধের জের ধরে তাকে হত্যা করা হতে পারে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। হত্যাকারীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড সদস্য ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য নুরুল ইসলাম জানান, মাস খানেক আগে তার ওয়ার্ডে মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী কমিটি গঠন করা হয়। সেই কমিটিতে সদস্য ছিলেন খাইরুল। কমিটি গঠনের কিছুদিন পর স্থানীয় এক প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ী ফেনসিডিল ও অস্ত্রসহ পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়। তার সমর্থকদের ধারণা, তাকে গ্রেফতারের পেছনে হাত ছিল খাইরুলের। সেই ক্ষোভের প্রতিশোধ নিতেই খাইরুলকে হত্যা করা হতে পারে।

জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুর আলম জানান, নিহত খাইরুল হেমায়েতপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড কৃষকলীগের ১১ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ছিলেন। তিনি এই হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও হত্যাকারীদের গ্রেফতারের জোর দাবি জানান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত