প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রুশ সামরিক বাহিনীর মিসাইল হামলাতেই ধ্বংস হয়েছে মালয়েশিয়ান বিমান: আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদল

 

নূর মাজিদ: ২০১৪ সালে ইউক্রেনের আকাশে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট এমএইচ-১৭ রুশ সামরিক বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলাতেই ধ্বংস হয়েছে। এই ঘটনার তদন্তে নিয়োজিত আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদল বৃহস্পতিবার এমন কথা জানিয়েছেন।

হল্যান্ডের বান্নিক শহরে এক অনুষ্ঠানে এই বিশেষজ্ঞরা তাদের তদন্তের প্রাথমিক ফলাফল জনসম্মুখে প্রকাশ করেন। এসময় তারা জানান, তারা বেশ কিছু ভিডিও ইমেজ বিশ্লেষণ করে প্রমাণ পেয়েছেন, যে ক্ষেপণাস্ত্রটি বিমানটিকে ধ্বংস করেছে সেটি রুশ সামরিক বাহিনীই নিক্ষেপ করে। রুশ সেনাদের একটি সামরিক যানবহর থেকে এই মিসাইল ছোঁড়া হয়। তদন্তকারিরা জানান, যে রুশ সামরিক ইউনিটটি এই কাজে সম্পৃক্ত ছিলো তাকে তারা সনাক্ত করতে সমর্থ হয়েছেন। রুশ সামরিক বাহিনীর ৫৩তম বিমান বিধ্বংসী ব্রিগেড এই ক্ষেপণাস্ত্রটি নিক্ষেপ করে। ঘটনার সময় ঐ সেনা ইউনিটটিকে ইউক্রেন সীমান্তের কাছে কুরস্ক শহরে মোতায়েন করা হয়েছিলো।

তবে এসময় বিশেষজ্ঞরা আরো বিস্তারিত তদন্ত পরিচালনা করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন এবং ঐ ইউনিটটিতে কর্মরত সেনাদের পরিবার-পরিজনকে এই তদন্তে সহায়তা করবার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে আহŸান জানান। মুখ্য তদন্ত কর্মকর্তা ফ্রেড ওয়েস্টারবেক বলেন, এই অনুসন্ধানের ফলাফল তারা রাশিয়ার কাছে জমা দিয়েছেন তবে এখনও রাশিয়ার পক্ষ থেকে কোন জবাব তারা পাননি।

তবে রুশ প্রতিরক্ষা বিভাগ এই তদন্তের ফলাফলকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে।রাশিয়ার রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত বার্তা সংস্থা ইতার তাস্ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে জানায়, তাদের কোন সামরিক ইউনিট বা ক্ষেপণাস্ত্র ইউক্রেনের সীমান্ত অতিক্রম করেনি। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদের একটি আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এই তদন্তের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। তারা জানায়, “এই ধরনের অভিযোগ এনে আন্তর্জাতিক স¤প্রদায়ের কাছে রাশিয়ার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার চেষ্টা করা হচ্ছে এবং আমরা এই ধরনের অপপ্রচারের তীব্র প্রতিবাদ জানাই।”

এদিকে এই তদন্তের ফলাফল প্রকাশের পরপরই অনুষ্ঠিত একটি কেবিনেট বৈঠকে যোগ দিতে ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুতে তার ভারত সফর একদিন সংক্ষিপ্ত করে দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের এই বিমান দূর্ঘটনায় ১৯৩ জন ডাচ নাগরিক নিহত হয়। এর পরপরই নেদারল্যান্ড সরকার আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের অধীনে এই তদন্ত কমিটি গঠনে সহায়তা করে। -ডয়েচে ভেলে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত