প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আবেদন করলেও পাসপোর্ট পাবেন না তারেক রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান আবেদন করলেও নতুন পাসপোর্ট পাবেন না। তবে নাগরিকত্ব এবং পাসপোর্ট আত্মসমর্পণের মধ্যে কোনো সম্পর্ক নেই বলে জানিয়েছেন ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদফতরের (ডিআইপি) মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মাসুদ রেজওয়ান। গতকাল সকালে রাজধানীর আগারগাঁও ডিআইপি সদর দফতরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ডিআইপি ডিজি বলেন, ‘তারেক রহমান দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি। পাসপোর্টের জন্য তিনি আবেদন করেছেন কি না তা আমার জানা নেই। তবে আবেদন করলেও আইন অনুযায়ী তিনি পাসপোর্ট পাবেন না। পাসপোর্ট আদেশ, ১৯৭৩ অনুযায়ী, আবেদনের সময় থেকে পূর্ববর্তী পাঁচ বছরের মধ্যে কেউ অন্তত দুই বছর দণ্ডপ্রাপ্ত হলে পাসপোর্ট পাওয়ার যোগ্য হবেন না।’

তারেক রহমান ২০০৮ সালে বাংলাদেশ ত্যাগ করেন। তখন তার পাসপোর্ট ছিল হাতে লেখা। মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট ছিল না। ২০১০ সালে মেয়াদ শেষ হওয়ার পর ২০১৪ সালে তিনি ওই পাসপোর্ট লন্ডন হাইকমিশনে সারেন্ডার করেন। এখন নতুন পাসপোর্ট নিতে হলে তার এনআইডি কার্ড লাগবে, যা তার নেই। এটি নিতে হলে অবশ্যই দেশে আসতে হবে। মেজর জেনারেল মাসুদ রেজওয়ান বলেন, ‘নাগরিকত্ব ও পাসপোর্ট সমর্পণের মধ্যে কোনো সম্পর্ক নেই। কোনো ব্যক্তির পাসপোর্ট না থাকলে তার নাগরিকত্ব বাতিল হয় না। যদি তারেক রহমান তার নাগরিকত্ব বাতিলের বিষয়ে আবেদন করে থাকেন, তাহলে সেটি ভিন্ন বিষয়। কিন্তু তারেক রহমান তার নাগরিকত্ব বাতিলের আবেদন করেছেন কি না সে বিষয়ে আমাদের জানা নেই।’ তিনি বলেন, ‘বর্তমানে তারেক রহমানের কাছে কোনো পাসপোর্ট নেই। পাসপোর্ট ছাড়াই তিনি লন্ডনে অবস্থান করছেন। কীভাবে সেখানে অবস্থান করছেন সেটি যুক্তরাজ্যের সরকারই জানে। তবে পাসপোর্ট না থাকলেও দেশে ফিরতে তার কোনো সমস্যা নেই। বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে ভ্রমণ পাস সংগ্রহ করে তিনি যে কোনো সময় দেশে আসতে পারেন।’ প্রসঙ্গত, তারেক রহমান অর্থ পাচারের একটি মামলায় উচ্চ আদালত থেকে সাত বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত। এতিমখানা দুর্নীতি মামলায় আদালত তাকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে। এ ছাড়া ফৌজদারি আদালতে তার বিরুদ্ধে অন্তত ১৮টি মামলা বিচারাধীন। কয়েকটি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত