প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ৭ বিভাগে জনসভার প্রস্তুতি বিএনপির

মাঈন উদ্দিন আরিফ: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ৭ বিভাগে জনসভা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি। এ জনসভায় ব্যাপক লোক সমাগাম করতে ইতোমধ্যে বিভাগীয় সংগঠনিক সম্পাদকদের নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

দলটির একটি নির্ভর যোগ্য সূত্র জানায়, আগামী ২৫ ফ্রেব্রুয়ারি হাইকোর্ট থেকে খালেদা জিয়ার জামিন না দিলে জনসভা করার মতো কর্মসূচি ঘোষণা করবে বিএনপি। আর এ কর্মসূচি ঘোষণা করবেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

জনসভার পাশাপাশি ২ দিনের লিপলেট বিতরণ ও বিভিন্ন পেশাজীবীদের সঙ্গে জেলায় জেলায় মতবিনিময় করার ও কর্মসূচি হাতে নিয়েছে দলটি।

এ নিয়ে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়কে সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট নথির উপর ভিত্তি করে সাজা দিয়েছে আদালত। আমরা তার মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি চালিয়ে যাবো। তিনি বলেন, আমরা আশা করবো ক্ষমতাসীনরা আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বাধা দেবে বাধাগ্রস্থ করবে না।

জনসভার বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, এখনো এরকম কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে আমাদের প্রিয় নেত্রীর মুক্তর দাবিতে আমরা শন্তিপূর্ণ ভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাবো। এর মধ্যে জনসভা করার জন্য আমরা অনুমতি চেয়েছি। সরকার আমাদের অনুমতি দেয়নি। আমার আশা করছি অচিরেই বেগম খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন।

দলের প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী বলেন, বাংলাদেশের জনপ্রিয় নেত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তর দাবিতে শান্তিপূর্ণ ভাবে যে কোন কর্মসূচি ঘোষণা করা হতে পারে এবং কোন কর্মসূচিতে শান্তিপ্রিয় গণতান্ত্রীকামী মানুষেরা অংশ গ্রহণ করবেন।

সাবেক এ ছাত্র নেতা বলেন, আমরা রাজধানীতে জনসভা করার অনুমতি চেয়েছি, কিন্তু এ অবৈধ সরকার সেই অনুমতি দেয়নি। আমরা আবারো অনুমতি চাইবো এবং আন্দোলনের মাধ্যমেই প্রিয়নেত্রীকে মুক্ত করে আনবো।

জনসভার করার জন্য কেন্দ্র থেকে কোন নির্দশান দেওয়া হয়েছে কি না জানতে চাইলে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম বলেন, আমরা এখনো কোন নির্দেশনা পাইনি কেন্দ্র থেকে। তবে কেন্দ্র থেকে যে কোন কর্মসূচি ঘোষণা করা হলে তা আমরা শান্তিপূর্ণ ভাবে পালন করবো। দল থেকে যদি জনসভা করার ঘোষণা দেওয়া হয়, তাহলে জনসভা জনসমুদ্রে পরিনত হবে বলেও জানান তিনি।

দলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি শরীফুল আলম বলেন, আমরা আশা করছি আমাদের নেত্রী অচিরেই মুক্তি পাবেন। কারণ এ মামলা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বানোয়াট। তবে নেত্রীর মুক্তির দাবিতে যে কোন কর্মসূচি পালন করতে আমাদের নেতাকর্মীরা প্রস্তুত রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত