প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের তালিকা তৈরি করছে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট

ফারমিনা তাসলিম: সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকা এবং বিভিন্ন অঞ্চলের শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়ে জঙ্গি কর্মকান্ডে জড়িয়ে যেতে দেখা যায়। তাই নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের সহজে খুঁজে পেতে তাদের একটি তালিকা তৈরি কাজ শুরু করছে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

মুদির দোকানী নজরুল ইসলামের স্বপ্ন ছিল ছেলে মানুষের মতো মানুষ হয়ে পরিবারের হাল ধরবে। কিন্তু জঙ্গিদের হাতে পড়ে চট্টগ্রামের কাজেম আলী স্কুলের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র নাফিস উল ইসলামও হয়ে গেলো জঙ্গি।

সম্প্রতি ঢাকার নাখালপাড়ায় জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের অভিযানে নিহত তিনজনের একজন নাফিস। বৃহস্পতিবার নিহত দুইজনের ছবি প্রকাশ করা হয়। এরপরই পুলিশ শনাক্ত করে, নিহতদের একজন চট্টগ্রাম থেকে নিখোঁজ হওয়া নাফিস। একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে এখন শোকে স্তব্ধ পিতা।

পুলিশ বলছে, নাখালপাড়ায় নিহত জঙ্গীদের নিয়মিত যাতায়াত ছিল চট্টগ্রামের সদরঘাটের জঙ্গী আস্তানায়। নগরীর প্রতিটি থানায় নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের তালিকা তৈরীর কাজ শুরু হয়েছে বলে জানান চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গোয়েন্দা) হুমায়ুন কবীর।

এর আগে, ২০১৬ সালে বাকলিয়া থেকে তাবলীগে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়ে আর ফিরেনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সাব্বিরুল হক কণিক। এছাড়া, ২০১৫ সালে ইপিজেড এলাকার মেরিন ইঞ্জিনিয়ার নাজিবুল্লাহ ফেসবুক বার্তায় ছোট ভাইকে জানান, আইএসে যোগ দিতে ইরাকে গেছেন তিনি।

সূত্র : ডিবিসি নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত