প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

স্ত্রীর পরামর্শেই বাংলাদেশ ছেড়ে শ্রীলঙ্কায় হাথুরুসিংহে

স্পোর্টস ডেস্ক: চুক্তির মেয়াদ শেষ না হতেই বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ান হাথুরুসিংহে। তার পদত্যাগের কারণ নিয়ে গুঞ্জণ থাকলেও অবশেষে জানা গেলো সঠিক কারণ। শ্রীলঙ্কায় দেয়া এক ইন্টারভিউতে পরিষ্কার হলো, আসলে নিজ স্বার্থের কথা ভেবেই বাংলাদেশ ছেড়ে দেশে ফিরেছেন হাথুরুসিংহে। আর সেটি স্ত্রীর সাথে আলোচনা করেই।

অস্ট্রেলিয়ায় স্থায়ী আবাস হাথুরুসিংহের। বাংলাদেশের সফলতম কোচের স্ত্রী ও তিন সন্তান তার সাথে ঢাকায় থাকতেন না। শ্রীলঙ্কাতেও থাকবেন না। তবে সুবিধা ওখানে বেশি। আর হাথুরুসিংহের টার্গেট, ‘আমার মনে হয় তিন বছর পর এই কাজ আমি আর করবো না। পরিবারের কাছে ফিরে যাবো।’’ তবে এই তিন বছরে দেশের মাটিতে পড়তি ফর্মের লঙ্কান দলকে সব ম্যাচ জেতাতে চান এই ৪৯ বছর বয়সী কোচ।

অক্টোবরে শুরু বাংলাদেশের দণি আফ্রিকা সফরের মাঝপথে বিসিবিকে পদত্যাগপত্র দিয়েছিলেন হাথুরুসিংহে। এই খবর প্রকাশ পেয়েছে আরো পরে। যখন শ্রীলঙ্কার সাথে কথা প্রায় চূড়ান্ত তার। হাথুরুসিংহে শ্রীলঙ্কার মিডিয়ায় সাাৎকারে বলেছেন, স্ত্রীর সাথে পরামর্শ করেই তার এই সিদ্ধান্ত। তারা একমত হয়েছেন যে টাইমিংটা ঠিক আছে নতুন প্রস্তাব নেওয়ার এবং তিন বছরের কাজ শেষ করে পরিবারের কাছে ফিরে যাওয়ার। তাই বাংলাদেশের সাথে চুক্তির থোরাই কেয়ার করেছেন হাথুরুসিংহে।

‘নিজের দেশকে কোচিং করানোর সুযোগটাই বড় প্রেরণা ছিল, সেই সাথে টাইমিংটাও।’ এছাড়া বিসিবির কাছ থেকে পাওয়া সুযোগ সুবিধার চেয়ে শ্রীলঙ্কান বোর্ডের প্রস্তাবিত সুযোগ সুবিধা যে বেশি আকর্ষণীয় ছিল তারও আভাস মেলে এই কোচের কথায়। হাথুরুসিংহের ভাষায়, ‘আমি শুধু শ্রীলঙ্কা দলকে কোচিং করাতে চেয়েছি তাই শুধু না, পরিবার থেকেও বেশি দূরে থাকতে চাইনি। চুক্তির বাড়তি সময়টাতে ওরা তো আমার সাথে সফর করতো না। তাই, আরো দুই বছর বাংলাদেশের সাথে কাজ করার চেয়ে এখানে কাজ করাই আমার কাছে ভালো মনে হয়েছে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত