শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৩ অক্টোবর, ২০২২, ০১:০৭ রাত
আপডেট : ০৩ অক্টোবর, ২০২২, ০১:০৭ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

রুশভূমির পুনর্মিলন: আমি স্বপ্ন দেখি বাংলার!

মাসুদ রানা

মাসুদ রানা: সোভিয়েত যুগে কমিউনিস্ট নেতৃত্ব রাশিয়ার যে-অংশসমূহ উক্রাইনের সঙ্গে জুড়ে দিয়েছিলো এবং এর ফলে যে সমস্যার সৃষ্টি হয়েছিলো সোভিয়েত-পতনের পর, আজ রুশ প্রেসিডেণ্ট ভ্লাদিমির পুতিন সে-সমস্যার ঐতিহাসিক সংশোধন সম্পন্ন করলেন স্বাধীনতা-ঘোষিত লোহানস্ক, দানেৎস্ক, যাপোরিৎজিয়া ও হেরসন অঞ্চলকে একটি আইনী প্রক্রিয়ায় পুনরায় রাশিয়ায় অন্তর্ভুক্ত করে নেওয়া মধ্য দিয়ে।

আজ দুপুরে লাঞ্চের ফাঁকে আমি উপরের ঐতিহাসিক প্রক্রিয়ার আনুষ্ঠানিকতাটি দেখলাম এবং প্রেসিডেণ্ট পুতিনের দেওয়া রুশীয় ভাষণের তাৎক্ষণিকভাবে কৃত ইংরেজি অনুবাদ শুনলাম। আমার মন্তব্য হচ্ছে এই যে, প্রেসিডেণ্ট পুতিন রাশিয়ার ইতিহাসে উজ্জ্বলতম নক্ষত্র-ব্যক্তিদের একজন হয়ে চিরঞ্জীব থাকবেন। আমি যখন এই রুশ-ভূমি পুনর্মিলন প্রত্যক্ষণ করছিলাম, আমার মনে আশৈশব লালিত বাংলার পুনর্মিলনের স্বপ্ন একটি চলচিত্রের মতো এগিয়ে চলছিলো। আর, আমি ভাবছিলাম, কবে সেই দিন আসবে যখন বাঙালী জাতি ভারতের অধীনে থাকা বাংলার ভূমি ও মানুষকে সেই বৃহত্তর স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলায় পুনর্মিলিত করবে!

ব্রিটিশ ঔপনিবেশিকেরা আমাদের বাংলা ষড়যন্ত্র করে কেড়ে নিয়ে ১৯০ বছর শাসন করে ছেড়ে যাবার কালে ভাগ করে গেলো! আমি যদি বাঙালী হই, আর বাংলা আমার মাতৃভূমি হয়, আমার অধিকার আছে বাংলার পুনর্মিলনের স্বপ্ন দেখার ও সে-স্বপ্ন বাস্তবায়িত করার লক্ষে ক্রিয়া করার।

যে-বাঙালী বাংলার পুনর্মিলন চায় না, সে একই সাথে বাঙালী ও ধর্মনিরপেক্ষ হতে পারে না। বাঙালী যদি একটি জাতি হয় এবং বাংলা তার দেশ হয়, তাদের একটি সকল বাঙালীতে একটি স্বাধীন জাতি না হওয়ার এবং সমগ্র বাংলা নিয়ে একটি স্বাধীন জাতি-রাষ্ট্র গঠন না করার কোনো যৌক্তিক কারণ থাকতে পারে না, যদি না বাঙালীত্ব নয় বরং ধর্মত্বই তাদের জাতিত্ব হয়।

পশ্চিম বাংলার বাঙালীকে যদি বাঙালী হিসেবে টিকে থাকতে হয়, তাদের উচিত একটি গণভৌটের মাধ্যমে ভারত থেকে বেরিয়ে এসে প্রথমে একটি ধর্মনিরপেক্ষ স্বাধীন রাষ্ট্র গঠন করা এবং সমতা ও ধর্মনিরপেক্ষতার ভিত্তিতে বাংলাদেশের সাথে মিলে বৃহৎ বাংলা জনরাষ্ট্র (Republic of Bengal) গঠন করা। আর, বাংলাদেশের বাঙালীর উচিত রাষ্ট্রীয় জীবনের সর্বক্ষেত্রে ধর্মনিরপেক্ষতা প্রতিষ্ঠা করে অভিন্ন ঐতিহাসিক বাঙালী জাতিপরিচয়কে ঊর্ধ্বে তুলে ধরা এবং বাংলাভাষা ও বাঙালী সংস্কৃতিকে বিকশিত করা। লণ্ডন, ইংল্যাণ্ড

  • সর্বশেষ