শিরোনাম
◈ আওয়ামী লীগ সরকার অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে সমুন্নত রাখতে বদ্ধপরিকর : প্রধানমন্ত্রী  ◈ মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের ব্রিফিংয়ে বিএনপির বেতনভুক্ত কেউ আছে: ড. হাছান মাহমুদ ◈ গাজীপুরে যুবককে গুলি করে হত্যা ◈ বাংলাদেশকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ল যুক্তরাষ্ট্র ◈ সংবাদপত্রকে জনগুরুত্বপূর্ণ শিল্প ঘোষণা ও কর কমানোর দাবি ◈ সচিব পদে পদোন্নতি ও রদবদল ◈ হায়দরাবাদকে ৮ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে কলকাতা ◈ নেতানিয়াহু ও সিনওয়ারার বিরুদ্ধে আইসিসি’র গ্রেপ্তারি আবেদনে ফ্রান্সের সমর্থন  ◈ বাংলাদেশি পণ্যের জন্য ডিউটি ফ্রি, কোটা ফ্রি সুবিধা অব্যাহত রাখবে অস্ট্রেলিয়া  ◈ বিএনপিসহ টিআইবির অপপ্রচারে ভোটার উপস্থিতি কমেছে: ওবায়দুল কাদের 

প্রকাশিত : ০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১১:৫৮ দুপুর
আপডেট : ০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ০৩:০৪ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

মিশরে কুরআন প্রতিযোগিতায় তৃতীয় বাংলাদেশের দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী হাফেজ তানভির

হাফেজ তানভির হোসাইন

মাজহারুল ইসলাম: বিশ্বের ৫৮টি দেশের ১০৮জন প্রতিযোগীর মধ্যে ৩০ পারা হেফজুল কুরআন (তাজভীদ) প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেছেন বাংলাদেশের দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী হাফেজ তানভির হোসাইন। মিশরের রাজধানী কায়রোতে অনুষ্ঠিত চার দিনব্যাপী ওই আন্তর্জাতিক হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতায় প্রতিযোগিতার প্রথম ও দ্বিতীয় হয়েছেন যথাক্রমে ঘানা ও মালদ্বীপের হাফেজরা। মুসলিম বিশ্বের অন্যতম মর্যাদাপূর্ণ আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতাটি এ বছর মিশরের প্রয়াত ক্বারী মোস্তফা ইসমাইলের নামে নাম করণ করা হয়েছে।

আসন্ন পবিত্র রমজান মাসের লাইলাতুল কদর রাতে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার ও সনদ পত্র তুলে দিবেন মিশরের রাষ্ট্রপতি আবদুল ফাত্তাহ সিসি। হেফজুল কুরআন প্রতিযোগিতার প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হওয়া প্রতিযোগীদেরপুরস্কারের মধ্যে রয়েছে যথাক্রমে ২৫০,০০০, ১৫০,০০০ এবং ১০০,০০০ মিশরীয় পাউন্ড।

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরকাকড়া গ্রামের ২৭ বছর বয়সী জন্মান্ধ হাফেজ তানভির হোসাইন রাজধানী ঢাকার মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসার ছাত্র। এর আগে তিনি সৌদি আরবের মক্কায় অনুষ্ঠিত কুরআন প্রতিযোগিতায় ৭৩ দেশের প্রতিযোগীদের হারিয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেন।

তানভির হোসাইনের সঙ্গে কায়রো যাওয়া তার প্রধান শিক্ষক নেছার আহমেদ আন নাছিরি জানান, আলহামদুলিল্লাহ আমার প্রিয় ছাত্র অন্ধ হাফেজ তানভীর হোসাইন খুব ভালো তিলাওয়াত করেছে। এর আগেও সে একাধিকবার আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করে বাংলাদেশের ১৮ কোটি মানুষের প্রতিনিধি হিসেবে দেশের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেছে।

২৯তম আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় বিচারক ছিলেন মিশরের ধর্মমন্ত্রী ড. মুহাম্মাদ মুখতার জুমা, গ্র্যান্ড মুফতি আল্লামা ড. শাওকি, ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারের মহাসচিব ড. নাজির আইয়াদে, আল-আজহারে শরিফ এর গ্র্যান্ড ইমামের পক্ষে ড. ওসামা আল-আব্দ, আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট সহ আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশ কয়েকজন ইসলামী স্কলার ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা।

এমআই/এইচএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়