শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর, ২০২৩, ০২:০৭ দুপুর
আপডেট : ২৬ নভেম্বর, ২০২৩, ০২:০৭ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ফিলিস্তিনের সমর্থনে লন্ডনে ৩ লাখ মানুষের বিক্ষোভ

সাজ্জাদুল ইসলাম: [২] গাজার এই সংঘাতে বর্তমানে মানবিক বিরতি চললেও এই বিরতি শেষ হওয়ার পরপরই গাজায় আবারও হামলা শুরুর ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। এই পরিস্থিতিতে গাজায় স্থায়ী যুদ্ধবিরতির দাবিতে যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে। শনিবার (২৫ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত এই বিক্ষোভে ৩ লাখ মানুষ অংশ নেন বলে জানিয়েছেন বিক্ষোভের আয়োজকরা। সূত্র: বিবিসি

[৩] গাজায় সাময়িক যুদ্ধবিরতি কার্যকরের পর লন্ডনে এটিই প্রথম বিক্ষোভ মিছিল। ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা ভূখণ্ডে টানা দেড় মাসেরও বেশি সময় ধরে অবিরাম হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। নির্বিচার এই ইসরায়েলি হামলায় নিহত হয়েছেন প্রায় ১৫ হাজার ফিলিস্তিনি। নিহতদের মধ্যে ৬ হাজারেরও বেশি শিশু।

[৪] লন্ডনের পুলিশ বলেছে, বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেওয়া ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যদিও ‘সংখ্যাগরিষ্ঠ’ বিক্ষোভকারীই আইনসম্মতভাবেই এদিন প্রতিবাদ করেছেন। লন্ডনের পাশাপাশি গ্লাসগো এবং কার্ডিফেও এদিন বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

[৫] হামাস গত শুক্রবার চার দিনের মানবিক বিরতির প্রথম দিনে ইসরায়েলের কারাগার থেকে ৩৯ ফিলিস্তিনির মুক্তি নিশ্চিত করেছে এবং বিনিময়ে ২৪ ইসরায়েলি ও বিদেশি জিম্মিকে মুক্তি দিয়েছে। এরপর শনিবার ইসরায়েলের ১৩ বন্দিসহ আরও ১৭ বন্দিকে মুক্তি দিয়েছে হামাস । মুক্তি পাওয়া অন্য চার বন্দি থাইল্যান্ডের নাগরিক। এর বিপরিতে ইসরায়েলও তাদের কারাগারে আটক ৩৯ ফিলিস্তিনি বন্দিকে রোববার মুক্তি দিয়েছে।

[৬] অস্থায়ী যুদ্ধবিরতির দ্বিতীয় দিনে ইসরায়েলি বন্দিদের মুক্তির বিলম্বের মধ্যেই লন্ডনের প্রাণকেন্দ্রে এই বিক্ষোভ মিছিলটি অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভের আয়োজকরা বলছেন, লন্ডনের পার্ক লেন থেকে হোয়াইটহল পর্যন্ত আয়োজিত এই বিক্ষোভ মিছিলে প্রায় ৩ লাখ লোক অংশ নিয়েছিল।

[৭] বিক্ষোভে প্রায় ১৫০০ কর্মকর্তা মোতায়েন করা হয়েছিল এবং আইন ভঙ্গ করতে পারে এমন শব্দ বা চিত্র সম্পর্কে সতর্ক করে বিক্ষোভকারীদের লিফলেট দেওয়া হয়েছিল। ফিলিস্তিনি পতাকা বহনকারী বিক্ষোভকারীদের সংঘাতে স্থায়ী যুদ্ধবিরতির দাবিতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে অংশ নিতে দেখা গেছে। সম্পাদনা: রাশিদ 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়