শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩, ০১:০১ দুপুর
আপডেট : ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩, ০৩:৩৬ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন নিয়ে সরকার-ইমরান মুখোমুখি

ইমরান খান

ইমরুল শাহেদ: পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) চেয়ারম্যান ও পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সোমবার বলেছেন, পাঞ্জাবের তত্ত্বাবধায়ক মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মহসিন নকভীর নিয়োগকে তার দল মেনে নেবে না। কারণ একজন নকভী একজন দুর্নীতিপরায়ন লোক। তাকে এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে নিয়োগ দেওয়া যায় না। 

পক্ষান্তরে প্রতিরক্ষামন্ত্রী খাজা মুহাম্মদ আসিফ বলেছেন, নকভীর নিয়োগকে পিটিআই চ্যালেঞ্জ জানালে সরকার চ্যালেঞ্জের বিরুদ্ধে আদালতে যাবে। ইসলামাবাদের এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, নকভীর নিয়োগ নিয়ে এখন আর চ্যালেঞ্জ জানানোর কোনো সুযোগ নেই। কারণ ইতোমধ্যে বিরোধী দল থেকে নির্বাচন কমিশন পর্যন্ত সকল আনুষ্ঠানিকতা ইতোমধ্যেই শেষ করা হয়ে গেছে। 

এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে ইমরান খান বলেছেন, ‘আমি যখন ক্ষমতায় ছিলাম তখন শুনেছিলাম একজন লোক সরকার উৎখাত করতে চায়। তিনি হলেন এই মহসিন নকভী। গোয়েন্দা বিভাগও এ ব্যাপারটি আমাকে অবহিত করেছিল।’ তিনি বলেন, ‘নকভী এমন সব লোকদের সরকারে আনবেন, যারা একেবারেই আমাদের বিরোধী।’

নির্বাচন কমিশন একজন মিডিয়া মোগলকে সবচেয়ে বড় প্রদেশটির মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন করায় ইমরান খান দুঃখ প্রকাশ করেন। মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচনের ব্যাপারে পিটিআই থেকে যে সব নাম প্রস্তাব করা হয়েছিল তার সবই প্রত্যাখান হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে মঙ্গল ও বুধবার লাহোর ও রাওয়ালপিন্ডিতে প্রতিবাদ মিছিল করা হবে। এর পর ফয়সালাবাদ, মুলতানসহ অন্যান্য শহরেও প্রতিবাদ মিছিল হবে। তবে সেটা হবে শান্তিপূর্ণ। 

এদিকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, তত্ত্বধায়ক মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচনের বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে খাইবার পাখতুনখোয়াতে বসেই। দুর্ভাগ্যবশত এটা পাঞ্জাবের বিষয় নয়। খাজা মুহাম্মদ আসিফ নতুন মুখ্যমন্ত্রী স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, তার তত্ত্বাবধানে পাঞ্জাবে একটি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়