শিরোনাম
◈ দুর্ঘটনায় রুবিনার মৃত্যু, শিক্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তিতে সহায়তা করবে পুলিশ ◈ নয়াপল্টনের সমাবেশে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে সরকারকে: আমান ◈ চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সয়াবিন, চাল ও চিনি  ◈ রাজশাহীতে বিএনপির গণসমাবেশ: পথে পথে তল্লাশি ◈ রাজনৈতিক দলগুলোই বিদেশিদের কথা বলার সুযোগ করে দিচ্ছে  ◈ আইপিএলে এবার সাকিবের ভিত্তিমূল্য কত? ◈ পরিবহন ধর্মঘটের কারণে রাজশাহীর সমাবেশে ট্রেনে আসছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা ◈ পোশাক রপ্তানিতে আবারো ভিয়েতনামকে ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ ◈ গত বছরের চেয়ে প্রবাসী আয় ১ বিলিয়ন ডলার কমতে পারে ◈ বিএনপির আগুন, লাঠি, দুর্নীতি ও ভোট চুরির বিরুদ্ধে খেলা হবে: কাদের

প্রকাশিত : ২৪ নভেম্বর, ২০২২, ০৫:৫৩ বিকাল
আপডেট : ২৫ নভেম্বর, ২০২২, ০৫:১৭ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বাংলাদেশের ইলিশের ওপর নির্ভরতা কমাতে চান মমতা 

ইলিশ- মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

রাশিদুল ইসলাম: ভারতে পশ্চিমবঙ্গের বাঙালিদের বাংলাদেশের পদ্মার ইলিশের প্রতি বরাবরই একটা টান রয়েছে। প্রতিবছর ইলিশ মৌসুমে কলকাতার ভোজনপ্রিয় বাঙালিরা পদ্মার ইলিশের দিকে তাকিয়ে থাকে। এবারও বাংলাদেশের দেড় হাজার টন পদ্মার ইলিশ এসেছে বাংলাদেশ থেকে। তবে সেই ইলিশের প্রতি নির্ভরতা কমানোর আহ্বান জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টাইমস অব ইন্ডিয়া

বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এখন থেকে বাংলাদেশের ইলিশের ওপর পশ্চিমবঙ্গের নির্ভরতা কমাতে হবে। সেই সঙ্গে নদী ও সমুদ্র থেকে ইলিশ পোনা বা ছোট ইলিশ ধরা বন্ধ করতে হবে। একই সঙ্গে ইলিশের উৎপাদন বাড়ানোর উদ্যোগ নিতে হবে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আমাদের সমুদ্র ও উপকূলীয় নদী এলাকায় ইলিশের বংশবৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে। শুধু ইলিশ নয়, আমাদের নদী ও জলাশয়ে অন্যান্য মাছের উৎপাদন বাড়াতে হবে। মাছের চাষ বাড়াতে হবে। এ জন্য মমতা মাছের জন্য বিভিন্ন জলাশয় মাছ চাষের জন্য রাজ্যের স্বনির্ভর গোষ্ঠী ও বিভিন্ন ক্লাবের হাতে তুলে দেওয়ার নির্দেশ দেন। এতে এই রাজ্যে মাছের উৎপাদন বাড়বে, সেই সঙ্গে বহু মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী।’ তিনি বলেন, এতে মাছের দাম কমবে।

মমতা আরও বলেছেন, ‘আমরা ডায়মন্ড হারবারে ইলিশ নিয়ে একটি গবেষণাকেন্দ্র তৈরি করেছি। সেখানে এই রাজ্যে আরও বেশি করে ইলিশ উৎপাদন নিয়ে গবেষণা করা হচ্ছে। এই গবেষণাকেন্দ্রে প্রতিনিয়ত ইলিশের গতিবিধি নিয়ে গবেষণা হচ্ছে। তাই ভবিষ্যতে যাতে এই রাজ্যে প্রচুর ইলিশ উৎপাদিত হয়, সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়া হচ্ছে।

মমতা বলেছেন, ‘আমরা এই রাজ্যে ইলিশের পোনা বা ছোট ইলিশ ধরা বন্ধ করে দিয়েছি। আমরা চাইছি আমাদের ছোট ইলিশ ধরা বন্ধের অভিযানে আমাদের মৎস্যজীবীরা এক হোক। তারা সচেতন হলে আর এই রাজ্যে ছোট ইলিশ ধরা বন্ধ হবে। ইলিশের বংশবৃদ্ধি হবে। ইলিশের উৎপাদন বাড়বে। ইলিশের মূল্য কমবে। আমাদের আর ওপারের ইলিশের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে না। আমাদের রাজ্যেও ইলিশ উৎপাদন বাড়বে।’

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়