শিরোনাম
◈ ঘন কুয়াশায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ ◈ নো ম্যানস ল্যান্ডে থাকা রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশ প্রবেশে নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু ◈ পুলিশ কর্মকর্তার গুলিতে আহত উড়িষ্যার মন্ত্রীর মৃত্যু ◈ কারাগারে অসুস্থ রিজভীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ◈ যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ’র উদ্দেশ্যে তুরস্কের পাল্টা ভ্রমণ সতর্কতা ◈ প্রমোদতরী গঙ্গা বিলাস কলকাতায়, মঙ্গলবার আসবে বাংলাদেশে ◈ ভোটের অধিকার ও গণতন্ত্র পনরুদ্ধারে আমরা একমত হয়েছি: মির্জা ফখরুল  ◈ মায়ের কাছেই থাকবে দুই জাপানি শিশু, মামলা খারিজ ◈ নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে জেরুজালেমে হাজার হাজার মানুষের বিক্ষোভ ◈ খোঁজ মিলছে না উকিল আবদুস সাত্তারের প্রতিদ্বন্দ্বী আসিফের

প্রকাশিত : ২৮ নভেম্বর, ২০২২, ০৬:০০ বিকাল
আপডেট : ২৮ নভেম্বর, ২০২২, ০৬:০০ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

২ ডিসেম্বর চট্টগ্রামে চালু হচ্ছে  ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’-এর নতুন শাখা

সিনেপ্লক্স

মনিরুল ইসলাম: অবশেষে চট্টগ্রামবাসীর প্রত্যাশা পূরণ হতে চলেছে। বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে চট্টগ্রামে চালু হচ্ছে দেশের জনপ্রিয় মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল ‘স্টার সিনেপ্লেক্স’-এর নতুন শাখা। আগামী ২ ডিসেম্বর এই শাখার উদ্বোধন হবে। ৩ ডিসেম্বর থেকে দর্শক এখানে সিনেমা দেখতে পারবেন। 

চট্টগ্রাম শহরের চকবাজার এলাকায় (নবাব সিরাজ উদ্দিন রোড) বালি আর্কেড শপিং কমপ্লেক্সে অবস্থিত সুপরিসর এই মাল্টিপ্লেক্সে তিনটি হল রয়েছে। বরাবরের মত নান্দনিক পরিবেশ, সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসম্বলিত সাউন্ড সিস্টেম, জায়ান্ট স্ক্রিনসহ বিশ্বমানের সিনেমা হলের যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা নিয়ে হলগুলো নির্মিত হয়েছে।

দেশব্যাপী অনেকগুলো সিনেমা হল নির্মাণের পরিকল্পনার  ধারাবাহিকতায়  সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের কাজ এগিয়ে চলছে বলে জানান ষ্টার সিনেপ্লেক্সের কর্ণধার মাহবুর রহমান রুহেল।

তিনি বলেন,  চট্টগ্রামে প্রচুর সিনেমাপ্রেমী দর্শক রয়েছেন যারা স্টার সিনেপ্লেক্সের মত একটি মাল্টিপ্লেক্স প্রত্যাশা করেন। চট্টগ্রামবাসীর দীর্ঘদিনের একটি দাবি পূরণ হলো। এই দাবি পূরণের কাজটি আমরা আরও আগেই করতে চেয়েছিলাম। নানা কারণে হয়ে ওঠেনি। এবার কাজটি করতে পেরে আমি আনন্দিত।

তিনি আরও বলেন, দেশে যখন একের পর এক সিনেমা হল বন্ধের খবরে হতাশা তৈরি হচ্ছে তার বিপরীতে স্টার সিনেপ্লেক্সের নতুন নতুন মাল্টিপ্লেক্স নির্মাণের খবর সিনেমা সংশ্লিষ্টদের মাঝে আশার সঞ্চার করছে। দেশের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির প্রসারে আমাদের এই উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে। আমরা বিশ্বাস করি বাংলা সিনেমার সুদিন আবার ফিরে আসবে। পরিবার-পরিজন নিয়ে হলে গিয়ে সিনেমা দেখার সংস্কৃতি আবার চালু হবে। এর জন্য যে পরিবেশ প্রয়োজন সেটা তৈরির চেষ্টা করছি আমরা।

এমআই/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়