শিরোনাম

প্রকাশিত : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১০:২২ রাত
আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০১:১০ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

আমার চরিত্রের এই দিকটা এখনও অনেকেরই অজানা

তামান্না ভাটিয়া

আনন্দবাজার : ভারতের দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির নায়িকা তামান্না ভাটিয়া। বাহুবলীর মতো সিনেমার নায়িকা তিনি। এবার ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেতে চলেছে মধুর ভাণ্ডারকার পরিচালিত ‘বাবলি বাউন্সার’। তামান্না ভাটিয়াকে এই ছবিতে বাউন্সারের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে।

`বাবলি বাউন্সার' সিনেমা প্রসঙ্গে তমান্না জানান, ভবিষ্যতে অ্যাকশন ঘরানার ছবি যেখানে মুখ্য চরিত্র হবে নারীকেন্দ্রিক, এই ধরনের ছবিতে অভিনয় করতে চান তিনি।

তমান্না জানান, ছোটবেলা থেকেই আমি টমবয়ের মতো। আমি যে জায়গা, যে পরিবেশে বড় হয়েছি, সেখানে সকলেই আমাকে মেয়েদের মতো হাঁটা-চলা করতে বলতেন। কিন্তু এখন সময় বদলেছে। মেয়েরা তাদের জীবনে কী করছেন, ভবিষ্যতে কী করবেন তা নিয়ে মন্তব্য করা বন্ধ করা উচিত। 

তিনি আরও বলেন, আদতে আমি খুবই মজার মানুষ। তবে আমার চরিত্রের এই দিকটা এখনও অনেকেরই অজানা। আশা করি এই ফিল্মের মাধ্যমে সেই দিকটা সবার সামনে আসবে।

দক্ষিণী সিনেমা জগতে সিনেমার ধারার কী রকম পরিবর্তন হয়েছে তা নিয়েও মন্তব্য করেছেন তমান্না। অভিনেত্রীর মতে, গত তিন বছরে সিনেমার চিত্রনাট্যে বদল এসেছে। বিভিন্ন ধরনের চরিত্র, বিভিন্ন স্বাদের গল্প নিয়ে ছবি বানানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী। দীর্ঘ ২০ বছরের কর্মজীবনে তিনি প্রচুর ছবিতে অভিনয় করেছেন যা বাণিজ্যিক ভাবে সফল। কিন্তু এখন অন্য ধরনের চরিত্রেই অভিনয় করতে চান তমান্না। সাধারণত, বাউন্সারের পদে শুধু মাত্র পুরুষদের চাকরিই বরাদ্দ থাকে। কখনও কোনও মহিলাকে বাউন্সার পদে চাকরি করতে দেখা যায়নি। বাবলি বাউন্সার ছবিতে বাউন্সারের চরিত্রে অভিনয় করেও বহু যুগ ধরে চলে আসা ট্রেন্ড ভাঙার বার্তা দিয়েছেন তমান্না। আমি এমন ভাবেই চরিত্র নির্বাচন করি যেখানে আমি নিজেকে নতুন ভাবে দর্শকের সামনে মেলে ধরতে পারি। অভিনেত্রী হিসাবে একই ধরনের চরিত্রে বার বার অভিনয় করতে একঘেয়ে লাগে। আমি যে ধরনের ছবি দেখা পছন্দ করি, সেই ধরনের ছবিতেই কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে।

উল্লেখ, মাত্র ১৫ বছর বয়সে তামান্না ভাটিয়া ২০০৫ সালে নায়িকা হিসেবে চান্দসা রোশান চেহ্‌রাতে অভিনয় শুরু করেন। পরে ছবিটি বাণিজ্যিকভাবে বক্স অফিসে সফলতা পেতে ব্যর্থ হয়। একই বছরে তিনি তেলুগু চলচ্চিত্রে তার প্রথম তেলুগু ছবি ‘শ্রী’ করেন, পরের বছর ২০০৬ সালে তামিল ছবি কেদি করেন। যদিও সিনেমাটি বাণিজ্যিকভাবে আলোর মুখ দেখেনি। তবে তামান্নার অভিনয় কর্ম তাকে অনেক প্রশংসা এনে দেয় ২০১৩ সালে অজয় দেবগনের বিপরীতে 'হিম্মতওয়ালা' সিনেমার মাধ্যমে। এরপর ২০১৫ সালে 'বাহুবলি' মুক্তির পর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি এই অভিনেত্রীকে। রিপোট: আলামিন শিবলী

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়