শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর, ২০২২, ০৭:৪৭ বিকাল
আপডেট : ২৬ নভেম্বর, ২০২২, ০৮:৩৪ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

জাবিতে ক্যারিয়ার কাউন্সিল, ক্রীড়া উৎসব : ইতিহাস বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তী

জাবিতে ইতিহাস বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তীতে সন্ধ্যার আয়োজন 

জাবি প্রতিনিধি : ইতিহাস বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত সুবর্ণজয়ন্তী ও তৃতীয় পুনর্মিলনী উৎসবের মাসব্যাপী আয়োজনের ২য় দিনে সেমিনার, ক্যারিয়ার কাউন্সিল  ক্রীড়া উৎসব ও গজল সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়।

আজ শনিবার (২৬ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯ টায়  বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও মানবিকী অনুষদের ইতিহাস বিভাগের ড. এ আর মল্লিক লেকচার হলে সেমিনারের মাধ্যমে আয়োজন শুরু হয়। একই সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে বিভাগের সাবেক বর্তমান শিক্ষার্থীদের নিয়ে ক্রীড়া উৎসবের (ফুটবল, ক্রিকেট ও ভলিবল) উদ্ভোদন করেন আ্যলামনাই অ্যাসোসিয়েশনের আহবায়ক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।

'অতীতের আলোতেই এই বর্তমান, পঞ্চাশে ইতিহাস হোক আম্লান, স্লোগানকে সামনে রেখে ২য় দিনের এই আয়োজন দুটি সেশনে অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম পর্বে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক, আশুতোষ চেয়ার ড. অমিত দে। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. এ টি এম আতিকুর রহমান। প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ থেকে বক্তব্য রাখেন, ড. এ কে এম শাহনেওয়াজ এবং ড. সুফি মোস্তাফিজুর রহমান। 

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের আশুতোষ চেয়ার, ড. অমিত দে 'বঙ্গ ও উত্তর ভারতে সুফি ভাব আন্দোলনের কয়েকটি দিক' শীর্ষক আলোচনায় বলেন, মৌলিক গবেষণার ক্ষেত্রে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এ বিভাগের শিক্ষার্থীদের বিচার বিশ্লেষণী ক্ষমতা তাদেরকে বিভিন্ন দিক থেকে এগিয়ে রাখতে সাহায্য করছে। 

সুফি আন্দোলন সম্পর্কে তিনি আরও বলেন,   সুফি বিষয়ক গবেষণা শুরু হয় পাশ্চাত্যের ইতিহাসবিদদের হাত ধরে। পরবর্তীতে উপমহাদেশের ইতিহাসবিদদের হাত ধরে তা বিস্তৃত হয়। সুফিরা শুধু ইসলাম প্রচারই করেনি। তারা রাষ্ট্র গঠনে অসামান্য অবদান রেখেছে। তৎকালীন শ্রেণিবিভক্ত সমাজ বিনির্মাণে তারা কাজ করে গেছেন। শুধু তাই নয়, সুফিদের মাধ্যমে এ অঞ্চলের স্থানীয় ভাষার বিকাশ সম্পন্ন হয়েছে।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় সেশনে ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য 'ক্যারিয়ার কাউন্সেলিং সেশন' এর আয়োজনে করা হয়। এসময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য বক্তব্য রাখেন, নারী উদ্যোগ কেন্দ্রের(নউক) প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক জনাব মাশহুদা খাতুন শেফালী, ইউএনডিপির সিনিয়র গভর্ন্যান্স পোর্টফলিও জনাব মোঃ মোজাম্মেল হক, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সমাজসেবা অধিদপ্তর এর যুগ্ম সচিব সৈয়দ মোঃ নূরুল বাসির এবং জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবের খেলোয়াড় মোঃ সানোয়ার হোসেন।

এসময় ক্যারিয়ার কাউন্সিলেং সেশনে আলোচকরা বিভাগের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য তাদের জীবনের অভিজ্ঞতার আলোকে ক্যারিয়ার বিষয়ক বিভিন্ন উপদেশ এবং দিক নির্দেশনা দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে সাবেক শিক্ষার্থীদের মধ্যে অংশগ্রহণ করেন, জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক খেলোয়াড় সানোয়ার হোসেন, দেশের ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের প্যানেল আম্পায়ার মাসুদুর রহমান মুকুল, দেশসেরা কোচ মোঃ সালাহউদ্দিন সহ বিভাগের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা।

এছাড়াও সন্ধ্যা ৬ টা ৩০ এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেলিম আল-দীন মুক্তমঞ্চে দেশের শুদ্ধ সংগীত চর্চার ধারক আমিন বাদল ও তার দলের পরিবেশনায় গজল সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, ইতিহাস বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তী ও তৃতীয় পুনর্মিলনীর মাসব্যাপী আয়োজনের আজ ছিলো দ্বিতীয় দিন। পরবর্তী আয়োজন থাকছে ১৭ ডিসেম্বর। 

প্রতিনিধি/জেএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়