শিরোনাম
◈ ঘন কুয়াশায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ ◈ নো ম্যানস ল্যান্ডে থাকা রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশ প্রবেশে নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু ◈ পুলিশ কর্মকর্তার গুলিতে আহত উড়িষ্যার মন্ত্রীর মৃত্যু ◈ কারাগারে অসুস্থ রিজভীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ◈ যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ’র উদ্দেশ্যে তুরস্কের পাল্টা ভ্রমণ সতর্কতা ◈ প্রমোদতরী গঙ্গা বিলাস কলকাতায়, মঙ্গলবার আসবে বাংলাদেশে ◈ ভোটের অধিকার ও গণতন্ত্র পনরুদ্ধারে আমরা একমত হয়েছি: মির্জা ফখরুল  ◈ মায়ের কাছেই থাকবে দুই জাপানি শিশু, মামলা খারিজ ◈ নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে জেরুজালেমে হাজার হাজার মানুষের বিক্ষোভ ◈ খোঁজ মিলছে না উকিল আবদুস সাত্তারের প্রতিদ্বন্দ্বী আসিফের

প্রকাশিত : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৩:১৬ রাত
আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৩:১৬ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ঝিনাইদহে পর্নোগ্রাফির মামলায় নারীসহ ২ জন গ্রেপ্তার

ফিরোজ আহম্মেদ: ঝিনাইদহে র‌্যাবের অভিযানে পর্ণোগ্রাফি মামলার প্রধান আসামিসহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, ঝিনাইদহ শহরের চাকলাপাড়া এলাকার প্রদ্যুৎ কুমার বিশ্বাস (৩৫) এবং জেলার মহেশপুর উপজেলার ভৈরবা গ্রামের মেরিনা খাতুন বৃষ্টি (২০)। 

একটি সংঘবদ্ধ চক্র যারা শহরের বিভিন্ন এলাকার লোককে কৌশলে প্রেমের ফাঁদে ফেলে জিম্মি করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয় তারা।
 
র‌্যাব সূত্র জানায়, ২০ সেপ্টেম্বর মেরিনা খাতুন বৃষ্টি ভিকটিমকে দেখা করার কথা বলে নিজ ভাড়াকৃত বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে আসামি প্রদ্যুৎ কুমার বিশ্বাসসহ তার সহযোগীরা ভিকটিমকে জোড়পূর্বক একটি রুমে আটকে ভিকটিমের নগ্ন ও অশ্লীল ছবি, ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে এবং মারধর করে অন্ধকার রুমে  আটকে রাখে। 
এরপর নগ্ন ও অশ্লীল ছবি, ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে দেয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। ভিকটিম বিভিন্ন উপায়ে তার নিকটস্থ আত্মীয় স্বজনদের নিকট যোগাযোগ করে আসামিদের বিকাশ নম্বরে ৩৮ হাজার ৭০০ টাকা প্রদান করলে ভিকটিমকে ছেড়ে দেয় এবং উক্ত বিষয়ে কাউকে কোন কিছু না জানানোর জন্য বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখায়। 

এরপর আসামি বৃষ্টি ভিকটিমকে পুনরায় মোবাইলের মাধ্যমে তৈরি নগ্ন ভিডিও, ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ব্লেক মেইল করে বিকাশ এর মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা দাবি করে। 

পরবর্তীতে এ বিষয়ে ভিকটিম নিজেই ঝিনাইদহ সদর থানায় বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করে। ঘটনার বিষয়ে র‌্যাব-৬, ঝিনাইদহ ক্যাম্পের একটি চৌকস আভিযানিক দল তদন্ত শুরু করে এবং আসামিদের গ্রেপ্তাররে গোয়েন্দা তৎপরতা অব্যাহত রাখে।

এরই ধারাবাহিকতায় (২৩ সেপ্টেম্বর) র‌্যাব-৬, ঝিনাইদহ ক্যাম্পের একটি দল গোপন তথ্যের মাধ্যমে জানতে পারে যে, উক্ত পর্নগ্রাফি মামলার প্রধান দুই পলাতক আসামি ঝিনাইদহ শহরের পায়রা চত্বর এলাকায় অবস্থান করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে দলটি এদিন রাতে পায়রা চত্বর বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আসামিদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে উক্ত ঘটনার সাথে সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে। তাদেরকে ঝিনাইদহ সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়