শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর, ২০২২, ০৮:৫৬ রাত
আপডেট : ২৬ নভেম্বর, ২০২২, ০৮:৫৬ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

মোহনগঞ্জে প্রাইমারীতে দুই সপ্তাহের ব্যবধানে ৪ স্কুলে চুরি

চুরি

রিংকু রায়, (নেত্রকোণা) মোহনগঞ্জ : নেত্রকোণার মোহনগঞ্জে দুই সপ্তাহের ব্যবধানে চারটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরি হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে স্কুলে থাকা ল্যাপটপ, সিলিং ফ্যান, ঘন্টা ও বৈদ্যুতিক বাল্বসহ নানা জিনিসপত্র চুরি করে নিয়ে যায়। এসব চুরির ঘটনায় স্কুলের পক্ষ থেকে মোহনগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এতে কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। এমনটি চুরি যাওয়া মালামালও উদ্ধার করতে পারেনি মোহনগঞ্জ থানা পুলিশ। 

মোহনগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) বিশ্বজিৎ সাহা এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, গত এক বছরে ১৫টির বেশি স্কুলে রাতের বেলায় তালা ভেঙ্গে চুরির ঘটনা ঘটেছে। থানা পুলিশ হস্তক্ষেপে চুরি বন্ধ না করলে অত্র উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়বে। তিনি থানা পুলিশের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এরমধ্যে গত ১৫ দিনেই চারটি স্কুলে চুরির ঘটনা ঘটেছে।

স্কুলের ল্যাপটপ ও সিলিং ফ্যানসহ নানা মালামাল নিয়ে গেছে। তবে এ পর্যন্ত একটি মালামালও উদ্ধার হয়নি। কোনো চোরও গ্রেফতার হয়নি। তবে সব ঘটনার পরই থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। 

শিক্ষা অফিস ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি উপজেলার বসন্তিয়া, সোনারামপুর, কলুংকা, বড়তলী-বানিয়াহারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরির ঘটনা ঘটে। এসব বিদ্যালয়ে নেই কোনো নৈশ্যপ্রহরী। এছাড়া বাউন্ডারি দেয়াল না থাকায় রাতে তালা ভেঙ্গে একটি ল্যাপটপ, ৮/১০টি সিলিং ফ্যানসহ নানা মালামাল নিয়ে যায়। এসব চুরির ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

স্কুলের চুরির ঘটনায় থানায় অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়ে মোহনগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) শফিকুজ্জামান বলেন, এসব ঘটনায় তদন্ত চলছে। চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার ও আসামী গ্রেফতার চেষ্টা অব্যাহত আছে। তিনি আরো বলেন, পুলিশ একা পক্ষে চুরি রোধ করা সম্ভব নয়। সবার সহযোগিতা কামনা করেন। 

প্রতিনিধি/জেএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়