প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]ছাতকে সুরমা নদীর ভয়াবহ ভাঙনে শতাধিক পরিবার নিঃশ্ব

নুর উদ্দিন : [২] সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার কালারুকা ইউনিয়নের মুক্তিরগাঁও ও পীরপুর গ্রামের মানুষের চলাচলের রাস্তা, বাড়ি ঘর, স্কুল, মসজিদ, ফসলি জমি সুরমা নদীর ভয়াবহ ভাঙনে নদীর গর্ভে বিলিন হয়ে গেছে।

[৩] এলাকার আরো কয়েকশ পরিবারের বসতভিটা ও ফসলি জমি নদী ভাঙনের হুমকির মুখে রয়েছে। অব্যাহত নদী ভাঙনের ফলে এখানের ভৌগোলিক মানচিত্র অনেকটা পরিবর্তন হয়ে পড়েছে। নদীপাড় সংলগ্ন বসবাসকারী এসব পরিবার বসতভিটা ও ফসলি জমি হারিয়ে অনেকই নিঃস্ব হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।

[৪] কালারুকা ইউনিয়নের মুক্তিরগাঁও নদীপাড়ে বসবাসরত মো: ফখর মিয়া ও চাঁন মিয়া জানান, সুরমা নদীর পার ভেঙে পড়ার শব্দে এখানের মানুষ আতঙ্কিত। বিগত ১০ বছরে শতাধিক পরিবার বসতভিটা ও ফসলী জমি হারিয়েছেন নদী ভাঙনের কারণে। এখনো ভাঙন অব্যাহত রয়েছে।

[৫] মুক্তিরগাঁও গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য তোতা মিয়া জানান, সুরমার ভাঙনের কবলে পড়ে বর্তমানে অনেকেই এ অঞ্চল ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছে। শত শত একর ফসলি জমি ও শতাধিক বসতভিটা সুরমা নদীতে বিলিন হয়ে গেছে। ভাঙন রোধ করা না গেলে সুরমা পাড়ের মানুষ আরো ভয়াবহ ক্ষতির সম্মুখিন হবে।

[৬] পীরপুর ঝন্টু কুমার দাস জানান, এ অঞ্চলের শত শত একর ফসলি জমি, বসতবাড়ি, স্কুল, মাদ্রাসা, মসজিদ, বাজার সুরমা নদী গ্রাস করেছে। বহু বিত্তবান ভিটে-মাটি হারিয়ে এখন পথের ভিখারী হয়েছেন। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত