প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শরিফুল হাসান: ভিডিওটি আমার শেয়ার করার রুচি হচ্ছে না!

শরিফুল হাসান: জুনিয়র এক কর্মকর্তাকে মারধর করে চেয়ারসহ মেঝেতে ফেলে গলা চেপে ধরছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা! আক্রান্ত কর্মকর্তাকে অ্যান্টিকাটার হাতে শাসান নির্বাহী প্রকৌশলী। বলেন তুই আমাকে চিনিস না!
আমি জানি না আপনারা ভিডিওটি দেখেছেন কী না!

আমার শেয়ার করার রুচি হচ্ছে না! ভাবতে অবাক লাগে এরা আমাদের দেশের সরকারি কর্মকর্তা!

এই দেশের প্রতিটি দপ্তরে এমন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিশ্চয়ই অনেক আছেন যারা অধস্তনদের সাথে বাজে আচরন করেন।
খুব অবাক হয়ে ভাবি, সহকর্মীদের সঙ্গে যদি এরা এমন আচরণ করেন, সাধারণ মানুষ বা সেবা প্রত্যাশীদের সাথে তারা কি আচরণ করেন!

এই দেশের পাড়া-মহল্লায় মাস্তান প্রথা চলছে। মাঝে মধ্যে মনে হয়, আজকাল সরকারি নানা দপ্তরে বোধহয় সেই সংস্কৃতি চালু হয়েছে। একদল কর্মকর্তা, কর্মচারী যারা নিজেদের রাজনৈতিক বা অন্য কোনোভাবে ক্ষমতাশালী মনে করেন, তারা সেখানে যা ইচ্ছা করে বেড়ান। যা ইচ্ছা বলেন! বাকিরা তাদের কাছে যেন জিম্মি!

একবার ভাবেন বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর হতে চলেছে। অথচ চারপাশে যেন মূল্যবোধের শুধুই অবক্ষয়! আচ্ছা এভাবে আর কতদিন চলবে? এই দেশে সুশাসন কী কোনদিন আসবে না? সভ্যতা, ভদ্রতা, মানুষকে সম্মান করা, মর্যাদা দেওয়া, সবাই মিলে ভালোভাবে থাকা, একটা সুন্দর দেশ, এগুলো কী শুধুই স্বপ্ন থেকে যাবে?

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত