প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রাইভেট পড়তে বেড়িয়ে ৭ম শ্রেণির দুই শিক্ষার্থী নিখোঁজ

এএইচ রাফি: [২] দুই বান্ধবী পারিমা সুলতানা জেবিন (১৩) ও মায়েদা আক্তার (১৩) দুই বান্ধবী একই সাথে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায় শিক্ষকের কাছে যায় টিউশনে প্রাইভেট পড়তে। শিক্ষকের কাছে প্রাইভেটও পড়েন দুইজন। সেখান থেকে তাদের আর কোন সন্ধ্যান পাওয়া যায়নি।

[৩] বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুই স্কুল শিক্ষার্থী নিখোঁজ রয়েছে। তারা দুইজন জেলা শহরের পাইকপাড়ার আনন্দময়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী। এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে সদর মডেল থানায় উভয় শিক্ষার্থীর পরিবার থেকে সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। নিখোঁজ পারিমা সুলতানা জেবিন পৌর এলাকার পশ্চিম মেড্ডা পীরবাড়ি এলাকার আব্দুল আওয়ালের মেয়ে ও মায়েদা আক্তার পৌর এলাকার কান্দিপাড়ার মায়মল পাড়া মহল্লার শাইদর আলীর মেয়ে।

[৪] নিখোঁজ পারিমা সুলতানা জেবিনের চাচা মোজাম্মেল হক জানান, জেবিন ও মায়েদা দুইজন জেলা শহরের আনন্দময়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীতে পড়াশোনা করেন। তারা দুইজন ভাল বান্ধবী। দুইজন একই সাথে শহরের বোর্ডিং মাঠ এলাকায় স্কুলের শিক্ষক জিয়াউলের কাছে প্রাইভেট পড়েন। প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় প্রাইভেটে দুইজন একসাথে যায়। ১০টায় প্রাইভেট শেষ হলে বের হয়ে পাইকপাড়ায় মায়েদার খালার বাসায় দুই বান্ধবী বেড়াতে যায়। সেখান থেকে বেলা সাড়ে ১২টায় বের হয়ে আসেন বলে আমরা জানতে পারি। কিন্তু এরপর থেকে জেবিন ও মায়েদা আর খোঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এই ঘটনায় দুই পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করা হয়েছে।

[৫] প্রাইভেট শিক্ষক জিয়াউল জানান, সপ্তাহে তিন দিন জেবিন ও মায়েদা প্রাইভেট পড়তে আসে। তারা সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত পড়ে চলে যায়। সন্ধ্যায় আমাকে ফোন করে দুই শিশুর পরিবার থেকে জানানো হয় তারা নাকি নিখোঁজ।

[৬] এই বিষয়ে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমরানুল ইসলাম জানান, দুই শিশু নিখোঁজের ঘটনায় উভয়ের পরিবার থেকে সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। এর তদন্তের দায়িত্ব ১নং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জকে দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত