প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] চোখের জলে বার্সেলোনাকে বিদায় জানালেন লিওনেল মেসি

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] বর্তমান ফুটবলবিশ্বের মহাতারকা লিওনেল মেসি বার্সেলোনা থেকে বিদায় নেবেন বলেই সংবাদ সম্মেলন কক্ষ ছিলো পিনপতন নীরবতা। করোনাভাইরাসের কারণে খুব বেশি মানুষও ছিলেন না। মেসি মঞ্চে এসে নিজেকে সামলাতে পারলেন না। বক্তব্য শুরু করার আগেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। অনেক কষ্টে নিজেকে সামলে কথা বলতে শুরু করলেও বিপুল করতালিতে আবারও কান্না।

[৩] ফুটবলবিশ্বের বরেণ্য খেলোয়াড়ের চোখ বেয়ে জলধারা নেমে আসার কারণ বিশ্বের সবারই জানা। রোববার (৮ আগস্ট) আনুষ্ঠানিকভাবে শৈশবের ক্লাব ২১ বছরের স্মৃতিজড়ানো বার্সেলোনাকে বিদায় জানালেন মেসি। অশ্রুসিক্ত নয়নে বিদায়ী স্মারক পড়ে শুনিয়েছেন।

[৪] প্রথম সারিতে বসা স্ত্রীর কাছ থেকে টিস্যু নিয়ে চোখ মুছতে মুছতে শুরু করেন শেষ বার্তা। মেসি বলেছেন, আমার জন্য বেশ কঠিন দিন। মোটেও প্রস্তুত ছিলাম না। আমার পরিবারও চাচ্ছিল, যেন এখানেই থাকি। বার্সেলোনা শহরের সব কিছু অসাধারণ। আমাদের সবকিছু এখানটা ঘিরেই। জীবনের বেশিরভাগ সময় এখানে কাটিয়েছি। স্ত্রী ও ছোট তিনটি সন্তান নিয়ে চলে যাচ্ছি। এখন সময় এসেছে বিদায় বলার। ক্লাবের জন্য আমার অনেক শ্রদ্ধা-সম্মান রয়েছে। ভক্তদের থেকে অনেক ভালোবাসা পেয়েছি। মহামারীর কারণে ঠিকমতো সবাইকে বিদায় জানাতে পারছি না। সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা। ক্লাবের জন্য সবসময় নিজের সবটুকুু দিতে প্রস্তুত আছি। যেকোনো পরিস্থিতিতে আমাকে পাশে পাবে।

[৬] ২০০০ সালে শুরু। দুই দশকেরও বেশি সময়ে বার্সেলোনাকে আর্জেন্টাইন মহাতারকা লিওনেল মেসি এনে দিয়েছেন অনেক অর্জন। শেষ ১৭ মৌসুমে ৩৫টি শিরোপা জিতেছেন বার্সার পক্ষে। চারটি চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ে রয়েছে তার অবদান। লা লিগা ট্রফিতে চুমু দিয়েছেন দশবার। কোপা দেল রে সাতটি এবং আটবার স্প্যানিশ সুপার কাপে নিজের নাম লিখিয়েছেন। তিনটি করে উয়েফা সুপার কাপ ও ক্লাব বিশ্বকাপের খেতাব জিতেছেন।

[৭] দীর্ঘ সম্পর্কের ইতি ঘটেছে গত ৫ আগস্ট। সবকিছু পেছনে ফেলে মেসি ছুটছেন নতুন গন্তব্যে। নতুন ঠিকানা ফ্রান্সের ক্লাব দল পিএসজি। যেখানে আছেন মেসির সাবেক সহখেলোয়াড় ব্রাজিলের তারকা নেইমারও। স্পেনের সংবাদ মাধ্যম ‘মার্কা’ জানিয়েছে, আগামীকাল মঙ্গলবার প্যারিসের আইফেল টাওয়ারে মেসির সঙ্গে চুক্তির পর তাকে সংবর্ধনা জানাবে পিএসজি। সম্পাদনা: হাসান হাফিজ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত