প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যশোরে ৮ জনের শরীরে ভারতীয় ধরনসহ ৭০ জনের করোনা শনাক্ত, সংক্রমণ বেড়েছে ২৫ শতাংশ

বাবুল আক্তার: [২] যশোরে আবারো করোনা শনাক্তের হার ঊর্দ্ধমূখী হয়েছে। ১০ দিন আগে যশোরে করোনা শনাক্তের হার ছিলো মাত্র ৯ শতাংশ। কিন্তু মঙ্গলবার (১ ‍জুন) সেই হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫ শতাংশে। এই সময়ে যশোরে স্থানীয়দের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে ভারতীয় ধরনও। সবমিলে সীমান্তবর্তী জেলা যশোরে ভয়াবহ হয়ে উঠছে করোনা প্রভাব।

[৩] যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জেনোম সেন্টারে যশোরের ৮ রোগীর শরীরে করোনা ভাইরাসের ভারতীয় ধরনসহ ৭০ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

[৪] ভারতীয় ধরন শনাক্ত হওয়া রোগীদের মধ্যে কারোরই ভারতে যাওয়ার কোনো সম্পর্ক বা ইতিহাস নেই। তাদের মধ্যে সাতজন পুরুষ, একজন নারী। এদের সবার বয়স ৫৬ বছরের নিচে। যবিপ্রবির জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

[৫] আব্দুর রশিদ জানান, সোমবার জেনোম সেন্টারের সহযোগী পরিচালক অধ্যাপক ড. মোঃ ইকবাল কবীর জাহিদের নেতৃত্বে একদল গবেষক সিকোয়েন্সির মাধ্যমে করোনাভাইরাসের ভারতীয় এ ধরন শনাক্ত করেন। ইতোমধ্যে ভারতীয় ধরন শনাক্তের বিষয়টি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, আইইডিসিআর, যশোরের স্থানীয় প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে।

[৬] জানানো হয়েছে, সম্প্রতি ভারতফেরত কোয়ারেন্টিনে থাকা পরবর্তী সময়ে পজেটিভ হওয়ার হার যশোর জেলায় গড়ে ১০ শতাংশ থেকে ১৯ শতাংশে উন্নীত হওয়ায় স্থানীয় সংক্রমণ হয়েছে কি-না তা জানার জন্য স্থানীয় ৩৬ জনের নমুনা সিকোয়েন্সিং করে ভারতীয় ধরন শনাক্ত করা হয়।

[৭] যবিপ্রবির গবেষক দলটি জানান, B1.617.2 নামের ধরনটি জেনোম সেন্টারে শনাক্ত করা হয়েছে। গত ৮ মে যবিপ্রবির ল্যাবে সর্বপ্রথম দুইজন করোনা রোগীর নমুনায় ভারতীয় এ ধরন শনাক্ত করা হয়। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এখন পর্যন্ত ভারতফেরত ৫৫০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পেয়েছে। ভারতফেরত রোগীদের মধ্যে সাতজনের শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়ান্ট B1.617.2 পাওয়া যায়। এদের মধ্যে দুইজন করোনা পজেটিভ হয়েই দেশে আসেন। কেউ কেউ উপসর্গহীন অবস্থায়ও ভাইরাস বহন করছিলেন । যবিপ্রবির ল্যাবে এ পর্যন্ত ভারতফেরত ও স্থানীয়সহ ১৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের ভারতীয় ধরন শনাক্ত করা হলো।

[৮] এদিকে মঙ্গলবার (১ জুন) ৭০ জনসহ জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দাড়ালো সাত হাজার ১১ জনে।

[৯] সিভিল সার্জন শেখ আবু শাহীন জানান, মঙ্গলবার যবিপ্রবি (জিনোম) সেন্টারে ২’শ’ ৮৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭০ জন পজিটিভ এসছে।

[১০] যশোর বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের ও পরীক্ষণ দলের সদস্য অধ্যাপক ড. ইকবাল কবীর জাহিদ জানান, যবিপ্রবি জিনোম জেন্টারে এদিন ৩’শ ২২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭৫ জনের করোনা পজিটিভ এবং ২’শ ৪৭ জনের নেগেটিভ ফলাফল এসেছে। এর মধ্যে যশোরের ২’শ ৮৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭০ জন, মাগুরার ২২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে তিন জন ও নড়াইলের ১১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে দুই জনের নমুনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। সম্পাদনা: হ্যাপি

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত