প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অধ্যাপক ড. কামরুল হাসান মামুন: আমাদের চেয়েও করোনার খারাপ পরিস্থিতির মধ্যে অন্য দেশ পারলে, কেন আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এখনো খোলা যাচ্ছে না!

অধ্যাপক ড. কামরুল হাসান মামুন: করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কভিাবে খোলা রাখা যায় সেজন্য বিশ্বের অনেক উন্নত দেশ কীভাবে আমাদের চেয়ে অনেক খারাপ অবস্থা সত্ত্বেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখছে, সেইটা সরেজমিনে দেখার কোনো প্রজেক্ট এখনো হয়নি? এজন্যই তো আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এখনো খোলা যাচ্ছে না। জাতির বৃহত্তর স্বার্থ অনতিবিলম্বে একঝাঁক কর্মকর্তাকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কীভাবে করোনা এতো খারাপ পরিস্থিতিতে তারা তাদের শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রাখছে তা সরেজমিনে দেখে আসতে পাঠানো উচিত। রাষ্ট্রের বৃহত্তর স্বার্থ এটা খুবই জরুরি।

শুনলাম সরকারি কর্মকর্তাদের এই করোনা সংকটের সময়েও বিদেশ ভ্রমণের বিলাসিতা বন্ধ হয়নি। তাহলে এই ব্যবস্থাটি এতোদিনেও কেন করা হয়নি? কতো তুচ্ছ বিষয়ে রাষ্ট্রের কতো টাকা খরচ করে বিদেশ ঘুরে আসেন, অথচ আমাদের লাখ লাখ শিক্ষার্থীদের কল্যাণার্থে এটি কেন এতোদিনেও করা হলো না দেখা উচিত। কার গাফিলতি বের করার জন্য একটা তদন্ত কমিটিও হওয়া উচিত।

শুনেছি ২০১৮ সালে ভারতের মুম্বাই, দিল্লি, আহমেদাবাদ ও গুজরাটে অবস্থিত মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্র দেখে আসেন পাঁচ সরকারি কর্মকর্তা। সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে তারা তেজগাঁওয়ের কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রকে আধুনিকায়নের উদ্যোগ নেন। কিন্তু বিদেশের এতোগুলো নিরাময় কেন্দ্র দেখেও যথেষ্ট অভিজ্ঞতা নাকি হয়নি। তাই এবার বিশ্বের আরও যেখানে যেখানে নিরাময় কেন্দ্র আছে, সেগুলোও দেখতে চান।  করোনা প্রকোপের মধ্যেই দেশ এবং কারা কারা বিদেশ ভ্রমণে যাবেন সেগুলো চূড়ান্ত। লেখক : শিক্ষক, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত