প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভারতে সেরামের তৈরি কোভ্যাকসিন ও ভারত বায়োটেকের কোভিশিল্ড নেওয়ার পর করোনা শনাক্তের হার.০৪ শতাংশ

শরীফ শাওন: [২] ভারতীয় চিকিৎসা গবেষণা পরিষদের গবেষণায় বলা হয়, প্রথম ডোজ কোভিশিল্ড টিকা নেওয়ার পর করোনা শনাক্তের হার ছিলো .০২ শতাংশ এবং দ্বিতীয় ডোজের পর .০৩ শতাংশ। অপরদিকে কোভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেওয়ার পর করোনা শনাক্তের হার ছিলো ০.০ ৪ শতাংশ।

[৩] বুধবার ভারতীয় চিকিৎসা গবেষণা পরিষদের মহাপরিচালক বলরাম ভারগাভা জানান, ভ্যাকসিন দুটির প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ টিকা ব্যবহারের পর করোনা শনাক্তের হার নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সরকারি মেডিক্যাল গবেষণা বোর্ড। এসময় ২৬ হাজার লোকের উপর টিকা প্রয়োগের ডাটা সংরক্ষণ করা হয়।

[৪] দেশটিতে ১১.৬ কোটি ডোজ কোভিশিল্ড দেওয়া হয়েছে, যেখানে ১০ কোটি প্রথম ডোজ নেওয়ার পর ১৭ হাজার ১৪৫ জন পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। ১ কোটি ৫৭ লাখ ৩২ হাজার ৭৫৪ জন দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর করোনা শনাক্ত হয়েছে ৫ হাজার।

[৫] ভারগাভা জানান, কোভ্যাকসিন ও কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজ টিকা নেওয়ার পর ২১ হাজার ব্যক্তি করোনা শনাক্ত হয়েছেন, দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর শনাক্ত হয়েছে ৫ হাজার ৫০০ জন। তিনি বলেন, ভ্যাকসিন নেওয়ার পর করোনা শনাক্তের সংখ্যা খুবই কম, এ নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। সম্পাদনা: আসিফুজ্জামান পৃথিল

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত