প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জীবন-জীবিকার মধ্যে সমন্বয়ের কারণে করোনা কিছুটা নিয়ন্ত্রণে: ওবায়দুল কাদের

সমীরণ রায়: [২] আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, বিশ্বের অনেক উন্নত দেশ করোনা মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে। সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ও বিচক্ষণ নেতৃত্বের কারণে বাংলাদেশে করোনার প্রথম ঢেউ মোকাবিলা করে দেশ-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে।

[৩] তিনি বলেন, ২০০৭ সালের ৭ মে তৎকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার ঘোষিত জরুরি অবস্থা চলাকালীন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসা শেষে শত প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে দিশে ফিরে আসেন শেখ হাসিনা। বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসে এ দিনটি স্মরণীয়।

[৪] সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা কোনো অন্যায় করেননি বলে বুকে ছিলে তার অসীম সাহস। এ দেশের মাটি ও মানুষই তার রাজনীতির মূল শক্তি। তাইতো কোনো ষড়যন্ত্রই তাকে সেদিন ঠেকিয়ে রাখতে পারেনি। পিতার মতোই তিনি ভালোবাসেন দেশের মানুষকে। তাইতো গণতন্ত্রকে শৃঙ্খলমুক্ত করতে শত বাঁধা পেরিয়ে শেখ হাসিনা দেশে এসেছিলেন বলেই সেদিন জনগণের চাপে তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাধ্য হয়েছিল নির্বাচন দিয়ে সরে যেতে।

[৫] তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডের বিচারের রায় ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করে শেখ হাসিনা জাতিকে করেন পাপমুক্ত। তার হাত ধরেই এসেছে সমুদ্র বিজয়, দীর্ঘদিনের সীমান্ত সমস্যার সমাধান তার অসামান্য কূটনৈতিক দক্ষতারই পরিচায়ক। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট প্রেরণের মাধ্যমে স্বপ্নের সীমানাকে পৌঁছে দিয়েছেন মহাকাশে। নিজস্ব অর্থায়নে সক্ষমতা ও গর্বের প্রতীক পদ্মা সেতুর কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে, দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে স্বপ্নের কর্ণফুলী টানেল এবং তরুণ প্রজন্মের স্বপ্নের মেট্রোরেল।

[৬] ওবায়দুল কাদের আগামী ১৭ মে শেখ হাসিনার ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে মিলাদ মাহফিলের মাধ্যমে দিবসটি পালন এবং মসজিদ, মন্দির ও প্যাগোডায় বিশেষ প্রার্থনার জন্য অনুরোধ জানান।

[৭] শুক্রবার তার বাসভবনে এক ব্রিফিংয়ে ঐতিহাসিক ৭ মে দিনটি স্মরণ করে তিনি এসব কথা বলেন।

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত