প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শওগাত আলী সাগর: প্রথম আলো ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের কাছাকাছি থাকার মতো তৃতীয় আর  একটি পত্রিকা দেশে তৈরি হতে পারলো না কেন?

শওগাত আলী সাগর: সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান সোশ্যাল মিডিয়ায় এক পোস্টে বলেছেন,‘শীর্ষস্থানে তুমুল প্রতিযোগিতায় ৫টি দৈনিক দরকার।’ মিডিয়া জগতে নতুন চিন্তা এবং সৃষ্টিশীলতার জন্য খ্যাতিমান নাঈমুল ইসলাম খান বেশ কিছু দিন ধরেই  মিডিয়ার নানা বিষয় নিয়ে কথা বলছেন। মিডিয়া জগতে তিনি একটা সংস্কার চান, যে সংস্কারের ভেতর দিয়ে দেশের মিডিয়া সত্যিকার অর্থেই সম্মানজনক একটা জায়গায় মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে- এমন একটা অভিপ্রায় থেকেই যে তিনি এসব লিখছেন সেটা তার মতামতগুলো পড়ে ধারণা করা যায়। সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খানের আজকের বক্তব্য প্রসঙ্গে আমার একটি মন্তব্য আছে। সেটি আমি তার পোস্টে করেছি। তার ‘শীর্ষস্থানে তুমুল প্রতিযোগিতায় ৫টি দৈনিক দরকার’- এই বক্তব্যটুকু আমার কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মনে হ্ওয়ায় আলাদা করে আমি এ নিয়ে আমার মত প্রকাশ করলাম। তিনি লিখেছেন, ‘বাংলাদেশের জাতীয় বাংলা দৈনিক সংবাদপত্র গুলোর মধ্যে প্রথম শীর্ষ অবস্থানে প্রথম আলো এবং বাংলাদেশ প্রতিদিন সর্বমোট পত্রিকা বিক্রির ৫০ শতাংশ বলে আমার বিশ্বাস।

এর মধ্যে ২৫ শতাংশ বাংলাদেশ প্রতিদিন অপর ২৫ শতাংশ প্রথম আলো (মোটামুটি)। দ্বিতীয় শীর্ষ অবস্থানে যুগান্তর, কালের কন্ঠ, ইত্তেফাক, আমাদের সময় এবং সমকাল, মিলে হবে অপর ২০ শতাংশ। এই গ্রুপের একেকটি পত্রিকার সঙ্গে শীর্ষ যে কোনোটির প্রচার সংখ্যার পার্থক্য বিশাল। প্রশ্ন হচ্ছে, একটি পত্রিকা শীর্ষস্থানে কিভাবে আসবে। পাঠক একটি পত্রিকাকে ব্যাপকভাবে গ্রহণ না করলে সেই পত্রিকাটির শীর্ষস্থানে আসার সুযোগ নেই। পাঠক কেন একটি পত্রিকাকে ব্যাপকভাবে গ্রহণ করে- সেই আলোচনা এই ক্ষেত্রে জরুরি।’ পত্রিকাটির পেশাদার নেতৃত্ব, পেশাদার সাংবাদিকতা, কোয়ালিটি কনটেন্ট, নির্মোহ এবং বিশ্বাসযোগ্য সংবাদ পরিবেশন- এইসব অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ নিয়ামক। এর বাইরে আর কী আছে? প্রথম আলো এবং বাংলাদেশ প্রতিদিনের কাছাকাছি থাকার মতো তৃতীয় আর  একটি পত্রিকা দেশে তৈরি হতে পারলো না কেন? মিডিয়াকে গালাগালি না করে- এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা দরকার। গণমাধ্যমকর্মীদের যোগ্যতা এবং দক্ষতার কোনো প্রভাব এই ক্ষেত্রে আছে কিনা সেটিও আলোচনা দরকার। লেখক : সিনিয়ার সাংবাদিক

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত