প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনায় ত্রাণ হিসেবে ভারতে ৫শ কোটি রুপির ওষুধ পাঠাচ্ছে ফাইজার

রাশিদুল ইসলাম : [২] ভারতে কোভিড পরিস্থিতি খুবই উদ্বেগজনক। আমরা আপনাদের পাশে আছি। সোমবার ফাইজার ইন্ডিয়ার ভারতের কর্মীদের উদ্দেশে মেল পাঠিয়ে এ বার্তা দেন কোম্পানির সিইও আলবার্ট বুরলা। পরে তিনি বলেন, আমরা কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারতের সহযোগী হতে চাই। ভারতের জন্য বিপুল পরিমাণ ত্রাণসামগ্রী পাঠানোর চেষ্টা হচ্ছে। কোম্পানির ইতিহাসে আগে কখনও এত বেশি পরিমাণে ত্রাণ পাঠানো হয়নি। দি ওয়াল

[৩] আলবার্ট বুরলা জানান, যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ ও এশিয়ার নানা দেশে ফাইজারের ডিস্ট্রিবিউশন সেন্টার থেকে কোভিডের ওষুধ ভারতে পাঠানো হচ্ছে। ফাইজারের সিইও বলেন, “ভারতের প্রতিটি হাসপাতালে কোভিড রোগীরা যাতে বিনামূল্যে ফাইজারের ওষুধ পান, সেজন্য আমরা চেষ্টা করছি।” ফাইজার যে পরিমাণ ওষুধ ভারতে পাঠাবে, তার দাম ৭ কোটি ডলার। অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় ৫১০ কোটি রুপির বেশি। আলবার্ট বলেন, আমরা ভারত সরকার ও বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি। ভারতে কোন কোন ওষুধ সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন, তা জানার চেষ্টা হচ্ছে।

[৪] সোমবার জানা যায়, ভারতের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে সুইডেন। তারা মোট ১০ লাখ অ্যাস্ট্রোজেনিকা টিকার ডোজ ভারতে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। জাতিসংঘের ‘কোভ্যাক্স’ প্রকল্পের মাধ্যমে এই টিকাগুলি ভারতে এসে পৌঁছবে। সুইডেনের মন্ত্রী পার অলসন ফ্রিদ বলেন, “সারা বিশ্বে কীভাবে মহামারী ছড়িয়ে পড়ছে আমরা দেখতে পাচ্ছি। মানুষ মারা যাচ্ছে। দারিদ্য বাড়ছে। বাচ্চারা স্কুলে যেতে পারছে না। একে আটকানোর জন্য আমরা যতটা পারি কাজ করব।”

[৫] ভারতে করোনা মোকাবেলায় যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, ব্রিটেন, আয়ারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশ থেকে উড়ে এসেছে সাহায্য। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করবেন নরেন্দ্র মোদি। তার আগেই আরও ১ হাজার ভেন্টিলেটর মেশিন ভারতে পাঠানোর কথা জানিয়েছে লন্ডন।

[৬] ব্রিটিশ অক্সিজেন কোম্পানিও বিনামূল্যে ৫ হাজার অক্সিজেন সিলিন্ডার ভারতকে দেওয়ার কথা জানিয়েছে। তার মধ্যে প্রথম দফার ৯০০ সিলিন্ডার ইতিমধ্যে এসে পৌঁছেছে। বাকি আর কিছুদিনের মধ্যেই পৌঁছে যাবে। মোট ৪৬ লিটার অক্সিজেন ব্রিটেন থেকে উড়ে আসবে ভারতে। ভারতকে ভ্যাকসিন তৈরির কাঁচামাল-সহ একাধিক চিকিৎসা সামগ্রী পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে সিঙ্গাপুর, আয়ারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া থেকেও এসেছে সাহায্য।

সর্বাধিক পঠিত