প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আদালতের হাজতে স্বামীর খাবারের সাথে ইয়াবা দিলেন স্ত্রী!

ডেস্ক রিপোর্ট: দিনাজপুরে চুরির মামলায় গ্রেফতার হওয়া স্বামীকে শুকনো খাবারের সাথে ইয়াবা দেয়ার অভিযোগে স্ত্রী রুজিনা বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কোর্টের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

রুজিনা বেগম চুরির মামলায় গ্রেফতার হওয়া মিলন রহমানের (২৭) স্ত্রী। মিলন রহমান দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার সাহেবপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ জানায়, দুই মাস আগে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় কেবল চুরির অভিযোগে পুলিশ বাদী হয়ে মিলন রহমানের নামে মামলা করে। সেই মামলায় গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে মিলন রহমানকে গ্রেফতার করে নবাবগঞ্জ পুলিশ। বুধবার মিলন রহমান আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এরপর আসামিকে আদালতের হাজতে নিয়ে যাওয়া হয়। ওইদিন বুধবার বিকেলে তার স্ত্রী রুজিনা বেগম শুকনো খাবার দেয়ার জন্য পুলিশের কাছে আসে। পুলিশ ওই খাবার দিতে না চাইলে রুজিনা কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক শফিকুল ইসলামের নিকট গিয়ে তার স্বামীকে খাবার দেয়ার জন্য অনুরোধ জানায়।

এসময় পুলিশের সন্দেহ হলে তল্লাশি করে তার নিকট থাকা শুকনো খাবারের মধ্যে ১৬ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে। এ ঘটনার পর রুজিনাকে ডিবি পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হয় এবং রুজিনা বেগমকে আটক করা হয়। পরে তার বিরুদ্ধে মাদক আইনে গোয়েন্দা পুলিশ পরিদর্শক আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করেন।

দিনাজপুর ডিবি’র ওসি আবু ইমাম জাফর বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রুজিনা তার স্বীকারোক্তিতে বলেন, স্বামী মিলন রহমান দীর্ঘদিন থেকে মাদক সেবন করেন। মাদক সেবন না করলে তিনি শারীরিকভাবে অস্থির হয়ে পড়েন এবং শরীরে বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি হয়। তাই ইয়াবা ট্যাবলেটের পুড়িয়াটি শুকনো খাবারের সঙ্গে দেন। পরে রুজিনার বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় মামলা করে বৃহস্পতিবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বাংলাদেশ প্রতিদিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত