প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ক্রমেই খারাপ হচ্ছে বাংলাদেশের মানুষের মানসিক স্বাস্থ্য পরিস্থিতি

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] গবেষণা বলছে, মার্চ থেকে ১৪ হাজার ৪৩৬ জন আত্মহত্যা করেছেন, যা করোনায় মৃত্যুর চেয়ে ৭০ শতাংশ বেশি

[৩] বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই সমস্যার প্রধান কারণ সচেতনতা ও পেশাদার ব্যাক্তির অভাব। বাংলাদেশে প্রতিবছর গড়ে ১০ হাজারের বেশি মানুষ আত্মহত্যা করেন। তবে গত মাসে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন মতে করোনার এক বছরে এই সংখ্যা প্রায় সাড়ে ১৪ হাজার। ৪৯ শতাংশ আত্মহত্যাকারীর বয়স ২০ থেকে ৩৫ এর মধ্যে। আনাদলু

[৪] বিশ্লেষকরা বলছেন, বিষন্নতায় ভোগা তরুণরা তার চারপাশের মানুষ থেকে কোনও প্রকার সহায়তা পান না। বরং এই প্রসঙ্গ উঠলে অনেকেই বিদ্রুপের শীকার হন। যা তাদের প্রায়শই আত্মহত্যার দিকে ধাবিত করেন। বিষন্নতা যে একটি রোগ, তার বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষ বিশ^াস করেন না।

[৫] ন্যাশনাল হেলথ ইন্সটিটিউটের চাইল্ড অ্যাডোলসেন্ট অ্যান্ড ফ্যামিলি সাইকিয়াট্রি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হেলাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, বাংলাদেশে মানষিক স্বাস্থ্যে পেশাদার ব্যক্তির প্রচণ্ড অভাব রয়েছে। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে সাইক্রিয়াস্টের সংখ্যা ২৭০ আর সাইকোলজিস্ট ৫০০ এর কম। আর এরা সবাইই বড় শহর কেন্দ্রীক।’

[৬] হেলাল উদ্দিন জানান, দীর্ঘমেয়াদের মানষিক সমস্যা গড় আয়ু ১০ বছর পর্যন্ত কমিয়ে আনতে পারে। তার মতে মানষিক স্বাস্থ্য সেবা জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে ছড়িয়ে দেওয়া উচিৎ।

 

সর্বাধিক পঠিত