প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজধানীতে আইসিইউ বেড ফাঁকা মাত্র ৭টি

নিউজ ডেস্ক: করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতিতে হাসপাতালগুলোতে মিলছে না সাধারণ বেডসহ নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র-(আইসিইউ) বেড। রবিবার (১১ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিফতর জানিয়েছে, রাজধানী ঢাকায় অধিদফতরের তালিকাভুক্ত সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে মাত্র সাতটি আইসিইউ বেড ফাঁকা আছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা রোগীদের জন্য কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের ১৬টি বেড, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালর ১০টি বেড, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের ১৬টি বেড, সরকারি কর্মচারী হাসপাতালের ৬টি বেড, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ২০টি বেড, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজের ১০টি বেড ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০টি বেডের সবকটিতেই রোগী ভর্তি রয়েছে।

কেবল মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১৯টি বেডের মধ্যে একটি, আর রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে ১৫টি বেডের দুটি বেড ফাঁকা রয়েছে।

অর্থাৎ, অধিদফতরের তালিকাভুক্ত সরকারি হাসপাতালের মোট ১৩২টি আইসিইউ বেডের মধ্যে রোগী ভর্তি আছেন ১২৯ জন, আর বেড ফাঁকা রয়েছে মাত্র তিনটি।

তবে এতদিন বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ বেড কিছুটা ফাঁকা থাকলেও এখন সেখানেও রোগীর চাপ বাড়ায় বেড ফাঁকা হচ্ছে না।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অধিদফতরের তালিকাভুক্ত বেসরকারি আনোয়ার খান মর্ডান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ২২টি বেড, আসগর আলী হাসপাতালের ১৮টি বেড, স্কয়ার হাসপাতালের ১৯টি বেড, ইবনে সিনা হাসপাতালের ৭টি বেড, ইম্পালস হাসপাতালের ৫২টি বেড, এএমজেড হাসপাতালের ১০টি বেড, বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালের ৯টি বেড, ল্যাব এইড হাসপাতালের ৮টি ও পপুলার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ৪৭টি বেডের সবক’টিতে রোগী ভর্তি রয়েছে।

কেবল বেসরকারি ইউনাইটেড হাসপাতালের ১৫টি বেডের মধ্যে একটি, এভার কেয়ার হাসপাতালের ২১টি বেডের মধ্যে দুটি, গ্রিন লাইফ হাসপাতালের ১৭টি বেডের মধ্যে একটি বেড ফাঁকা রয়েছে।

অর্থাৎ বেসরকারি হাসপাতালগুলোর মোট ২৪৫টি আইসিইউ বেডের মধ্যে ফাঁকা রয়েছে মাত্র চারটি বেড এবং রোগী ভর্তি আছেন ২৪১ জন।

দেখা যাচ্ছে, স্বাস্থ্য অধিদফতরের তালিকাভুক্ত সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে মোট আইসিইউ বেড রয়েছে ৩৭৭টি, এরমধ্যে রোগী ভর্তি আছেন ৩৭০ জন, আর বেড ফাঁকা রয়েছে মাত্র সাতটি।

দেশের অন্যান্য হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য আইসিইউ রয়েছে মোট ৬৭২টি, এতে রোগী ভর্তি আছেন ৫৩০ জন আর বেড ফাঁকা রয়েছে মাত্র ১৪২টি। – বাংলা ট্রিবিউন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত