প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ‘মিসেস শ্রীলঙ্কা’ নাম ঘোষণার পর পুষ্পিকার মুকুট কেড়ে নেওয়া হল মঞ্চেই, ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত, অভাবনীয় দৃশ্য (ভিডিও)

রাশিদুল ইসলাম : [২] ‘মিসেস শ্রীলঙ্কা’ প্রতিযোগিতায় তুলকালাম কাণ্ড ঘটল মঞ্চে। বিচারকরা ২০২১ সালের বিজয়ী হিসেবে একজনের নাম ঘোষণার পর জানতে পারেন তিনি ডিভোর্সি। প্রতিযোগিতায় ডিভোর্সি কোনো নারীর অংশ নেওয়ার সুযোগ নেই। কিন্তু আগের বিজয়ীর মাথায় ততক্ষণে মুকুট পরানো হয়ে গেছে। অগত্যা তার মুকুট ছিনিয়ে পাশেই রানার আপকে বিজয়ী ঘোষণা করে তাকেই মুকুট পরিয়ে দেওয়া হয়। আগের বিজয়ী রাগে ও ক্ষোভে কাঁদতে কাঁদতে মঞ্চ ত্যাগ করে চলে যান। পরে ফের তাকেই টাইটেল ফিরিয়ে দেওয়া সিদ্ধান্ত নেন আয়োজকরা। স্পুটনিক/ডেইলিমেইল

[২] অভাবনীয় এ দৃশ্যের অবতারণার মাঝে মঞ্চে হইচই শুরু হয়। মুকুট খুলে নেওয়ার সময় বিজয়ী প্রার্থী মাথায় বেশ আঘাত পান। শ্রীলঙ্কার জাতীয় টেলিভিশনে রোববার সম্প্রচারিত ওই অনুষ্ঠানে ‘মিসেস শ্রীলঙ্কা’ বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করা হয় বিউটিকুইন মিসেস পুষ্পিকা ডা সিলভা’র নাম। এর কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই ২০১৯ সালের বিজয়ী মিসেস ক্যারোলাইন জুরি তার মুকুট কেড়ে নেন। তিনি দাবি করেন এবার যাকে পুরষ্কার দেয়া হয়েছে তিনি ডিভোর্সি। তাকে এ পুরস্কার দেয়া যাবে না। তাই তিনি মুকুট পরিয়ে দেন অন্য একজনের মাথায়। পরে আয়োজকরা নিশ্চিত করেন যে পুষ্পিকা ডা সিলভা ডিভোর্সি নন। এরপর ওই মুকুট ফেরত দেয়া হয় পুষ্পিকাকে।

[৩] রোববার রাতে এই ঘটনা ঘটে কলম্বোর একটি থিয়েটারে। সেখানে বিচারকরা পুষ্পিকাকে বিজয়ী ঘোষণা করলেও ক্যারোলিন জুরির দাবি, নিয়ম আছে যে যেসব যুবতী সম্প্রতি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন এবং তালাকপ্রাপ্ত হয়েছেন তারা এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন না। তাই আমি এই প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান অধিকারীকে মুকুট পরিয়ে দিয়েছি। ক্যারোলিন যখন বিজয়ী পুষ্পিকা ডা সিলভার মাথা থেকে মুকুট খুলে একজন রানারআপের মাথায় পরিয়ে দেন। ওই মুহূর্তের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে মিডিয়ায়।

[৪] কিন্তু এখানেই নাটকের শেষ নয়। পরে মিসেস পুষ্পিকার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন আয়োজকরা। তাদেরকে পুষ্পিকা জানান যে, তিনি আলাদা আছেন। তবে ডিভোর্সি নন। ফেসবুকে দেয়া এক পোস্টে তিনি বলেছেন, ওই ঘটনার পর তিনি মাথায় আঘাত পান। এ জন্য তাকে হাসপাতালে যেতে হয়েছিল। জানিয়েছেন তাকে অযৌক্তিকভাবে অবমাননা করার কারণে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন।

[৫] এক সংবাদ সম্মেলনে মিসেস পুষ্পিকা বলেছেন, আমার মতো অনেক সিঙ্গেল নারী আছেন। তারা শ্রীলঙ্কায় এভাবে দুর্ভোগের শিকার। এই মুকুটটি আমি ওইসব নারীকে উৎসর্গ করলাম, যারা একা তাদের সন্তানদের মানুষ করছেন সিঙ্গেল থেকে।

[৬] মিসেস শ্রীলঙ্কা ওয়ার্ল্ড-এর জাতীয় পরিচালক চান্দিমাল জয়াসিঙ্ঘে বলেছেন, মুকুটটি মিসেস পুষ্টিকা ডা সিলভাকে ফেরত দেয়া হবে মঙ্গলবার। তিনি হতাশা প্রকাশ করে বলেন, ক্যারোলাইন জুরি মঞ্চে যে আচরণ করেছেন তা নিন্দনীয়। এ বিষয়ে মিসেস ওয়ার্ল্ড অর্গানাইজেশন তদন্ত শুরু করেছে। এরই মধ্যে ওই ঘটনা নিয়ে মিসেস জুরিকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ।

সর্বাধিক পঠিত