প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের প্রতিবেদন: যন্ত্রের কাছে চাকরি হারাবে প্রতি ১০ জনে ৬

নিউজ ডেস্ক: করোনা মহামারীর কারণে গত বছর বিশ্বজুড়ে চাকরি হারিয়েছে কয়েক কোটি মানুষ। মহামারী থেকে যখন ঘুরে দাঁড়াচ্ছিল বিশ্ব, তখন ফের করোনার হানায় চাকরি হারানোর ভয়ে আছে বিভিন্ন দেশের মানুষ। এরই মধ্যে ভবিষ্যৎ শ্রমবাজার নিয়ে একটি ভয়ংকর রিপোর্ট প্রকাশ করেছে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম (ডব্লিউইএফ)। তারা বলছে, ২০২৫ সালের মধ্যে মেশিন বা যন্ত্রের কাছে চাকরি হারাবে প্রতি ১০ জনের মধ্যে অন্তত ছয়জন। তখন কর্মস্থলে মানুষ ও মেশিন প্রায় সমান কাজ করবে।

ডব্লিউইএফের প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, করোনার আগে এবং করোনা মহামারী চলাকালীন মেশিনের ব্যবহার অত্যাধিক বৃদ্ধি পেয়েছে, যার কারণে আরো বেশি লোক তাদের চাকরি হারাবে। ১৯টি দেশের ৩২ হাজার চাকরিজীবীর ওপর পিডব্লিউসির পরিচালিত জরিপের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি করেছে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম। চাকরির নিরাপত্তা নিয়ে কর্মীরা কী ভাবছে, কাজের বৈচিত্র্য ও অন্তর্ভুক্তি, দক্ষতা, কর্মস্থানের দূরত্ব, সংস্থার পক্ষে কাজ করতে কতটা সক্ষম তার ভিত্তিতে।

বিশ্বব্যাপী জরিপ করা ৪০ শতাংশ কর্মচারী মনে করছেন যে তারা আসন্ন পাঁচ বছরের মধ্যে চাকরি হারাবেন। একই সঙ্গে ৫০ শতাংশ লোক মনে করেন যে তারা ভবিষ্যতেও দীর্ঘমেয়াদি কর্মসংস্থানের বিকল্পগুলো পেতে সক্ষম হবেন। বিশ্বব্যাপী ৪০ শতাংশ মানুষ লকডাউনকালে তাদের ডিজিটাল দক্ষতা উন্নত করেছে, আবার ৭৭ শতাংশ মানুষ নতুন কিছু শিখতে পেরেছে এবং নিজের দক্ষতা বাড়িয়েছে। – বণিক বার্তা

সর্বাধিক পঠিত