প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ষোল বছর পর ঠিকানা পেলো কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা

মাহফুজ নান্টু: [২] দীর্ঘ ষোল বছর নিজের ঠিকানা পেলো কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা। শনিবার বিকেলে গোমতী নদীর উত্তর পাড়ে ছত্রখিল এলাকায় কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ নতুন কমপ্লেক্স এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে।

[৩] কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপি শনিবার বিকেলে গোমতী পাড়ে মনোরম পরিবেশে ৬ একর ভূমিতে নান্দনিক ডিজাইনের এ কমপ্লেক্স ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। এ সময় কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর ভূমির দলিল উপজেলা চেয়ারম্যান এড.মো.আমিনুল ইসলাম টুটুলের হাতে তুলে দেন। আগামী এক বছরের মধ্যে উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স দৃশ্যমান হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন হাজী বাহার এমপি। এ সময় একই এলাকায় উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রেরও ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করা হয়।

[৪] জানা যায়, ২০০৫ সালের ৪ এপ্রিল আদর্শ সদর উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন এবং লাকসাম উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন সমন্বয়ে গঠিত হয় সদর দক্ষিন উপজেলা গঠিত হয়। সে সময় থেকে আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ কার্যালয়টি আর স্থানান্তর করা হয়নি।

[৫] জানা যায়, ২০১৭ সালের জুলাই মাসে কুমিল্লা সদর আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার ভৌগলিক অবস্থানগত দিক থেকে সদর দক্ষিনে (কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন এলাকায়) অবস্থিত বর্তমান আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ ভবনকে গোমতী নদীর উত্তরপাড়ে স্থানান্তরের উদ্যেগ গ্রহণ করেন। ২০১৯ সালের ২১ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে নিকার এর সভায় এ প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়। পরবর্তীতে হাজী বাহার এমপি প্রতিকী মূল্যে ভূমি হস্তান্তরের জন্য ভূমি মন্ত্রনালয়ে একটি ডিউ লেটার প্রদান করেন। এরই প্রেক্ষিতে গত ৩ মার্চ বুধবার মাত্র ১ লাখ ১ টাকায় বুধবার ভূমির দলিল প্রদান করেন কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মো.আবুল ফজল মীর। আগামী এক বছরের মধ্যে উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স দৃশ্যমান হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন হাজী বাহার এমপি।

[৬] জানা যায়, আদর্শ উপজেলা পরিষদ নতুন ভবন ও আবাসিক কোয়াটার এর ভিত্তি প্রস্তর উপলক্ষে নদীর উত্তর পাড়ের মানুষের মাঝে ঈদের আনন্দ বইছে। বর্নাঢ্য আয়োজনে নগরীর বিশিষ্ঠজন, উপজেলাধীন ৬ ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিসহ বিপুল সংখ্যক লোক অংশ গ্রহণ করে।

[৭] কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মোঃ আবুল ফজল মীর বলেন, আদর্শ সদর উপজেলা ভেঙ্গে সদর দক্ষিন উপজেলা পরিষদ হয়েছে। তবে থেকে যায় সদর উপজেলা পরিষদটি। সেটিকে সদর উপজেলায় স্থানান্তর করতে কুমিল্লা সদর আসনের সাংসদ বীরমুক্তিযোদ্ধা আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহারের উদ্যেগে ও আমার পূর্ববতী জেলা প্রশাসক মহোদয়গনের আন্তরিক প্রচেষ্টায় সফল হয়েছি। মূল কথা আমাদের সবার সম্মিলিত প্রয়াসে কাজটি সম্ভব হয়েছে।

[৮] অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুমিল্লা-৬ (সদর) আসনের এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন কুমিল্লার বিদায়ী জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর । উপজেলা চেয়ারম্যান এড.মো.আমিনুল ইসলাম টুটুলের সভাপতিত্বে আরও অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত, উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স এর পিডি জিপি চৌধুরী, এলজিইডি এর নির্বাহী প্রকৌশলী খন্দকার আছাদুজ্জামান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিয়া আফরিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক কাজী আবুল বাসার, জেলা পরিষদ এর প্যানেল চেয়ারম্যান ও মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আবদুল্লাহ আল মাহমুদ সহিদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তারিকুর রহমান জুয়েল। সম্পাদনা: সাদেক আলী

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত