প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] শেখ হাসিনার গাড়িবহর হামলা মামলায় বিএনপি নেতা-কর্মীরা ন্যায় বিচার বঞ্চিত হয়েছে, দাবি স্বজনদের

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : [২] সাতক্ষীরার কলারোয়ায় তৎকালিন বিরোধীদলীয় নেতা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা মামলায় দুইবারের সাবেক সাংসদ ও বিএনপির কেন্দ্রিয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ তিন জনের ১০ বছর ও বাকী ৪৭ জনের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করায় বিএনপি নেতা-কর্মীরা ও সাজাপ্রাপ্তদের স্বজনরা এ রায় প্রত্যাখ্যান করেছেন।

[৩] তারা বলছেন, তারা ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন।

[৪] আসামি পক্ষের আইনজীবী ও সাবেক সংসদ হাবিবের স্ত্রী এ্যাড. শাহানারা আক্তার বকুল  এবং এ্যাড. আব্দুল মজিদ  এই রায়ে ন্যায় বিচার পাননি উল্লেখ করে বলেন, আমরা উচ্চ আদালতে যাবো। বিবাদি পক্ষ্রে আইনজীবীরা মামলার এজাহার, পুলিশের অভিযোগপত্র এবং সাক্ষীদের জবানবন্দির মধ্যে তথ্যগত ব্যাপক গরমিল ও অসংলগ্নতা রয়েছে জানিয়ে বলেন সাক্ষীরা কোনভাবেই আসামীদের দোষী প্রমান করতে পারেননি।

[৫] ঘটনার দিন সাবেক দুইবারের সংসদ সদস্য হাবিবুল ইসলাম হাবিব কলারোয়ায় উপস্থিত ছিলেন এমন কোন প্রমানও তারা খাড়া করতে পারেননি। তারা আরও বলেন বিরোধী দলীয় নেতা মাগুরা যাবার পথে শার্শা ও নাভারনসহ  কয়েক স্থানে দলীয় সমাবেশে ভাষনসদানকালে হাবিবুল ইসলাম হাবিবের নাম একবারও বলেন নি। এমনকি পরদিন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত খবরেও তার নাম ছিল না। ছবিতেও হাবিবকে দেখা যায়নি। সাক্ষীরা বলেছেন হাবিবুল ইসলামের পরামর্শ ও নির্দেশে তার অনুসারীরা এই হামলা চালায়। শেখ হাসিনার গাড়িবহরে  হামলার ঘটনা  প্রমানিত হয়নি জানিয়ে তারা আরও বলেন আমরা ন্যায় বিচার বঞ্চিত হয়েছি।

[৬] জেলা বিএনপির আহবায়ক এ্যাড. সৈয়দ ইফতেখার আলী বলেন, কথিত গাড়িবহর হামলা মামলার যে রায় বিজ্ঞ আদালত দিয়েছেন তাতে আমরা জেলা বিএনপি সন্তোষ্ট হতে পারেনি। আমরা আশাবাদী উচ্চ আদআতে আমরা ন্যায় বিচার পাবো।

[৭] এদিকে, এ রায় ঘোষণার পর গতকাল বিএনপি নেতাকর্মীরা এই রায়কে প্রত্যাখ্যান করে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে করেন। এতে তারা বলেন, এ রায়ে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেন জেলা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক শেখ তারিকুল হাসান। এদিকে রায় ঘোষনার পরপরই সাবেক সাংসদ হাবিবকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তার মেয়ে কানেতা ইয়া লাম লাম। এ সময় সেখানে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারনা ঘটে।

[৮] উল্লেখ্য, ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট সাতক্ষীরায় একজন মুক্তিযোদ্ধার ধর্ষিতা স্ত্রীকে  সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে  দেখে মাগুরায় ফিরে যাচ্ছিলেন তৎকালিন বিরোধীদলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুপুর ১২ টার দিকে কলারোয়ায় বিএনপির অফিসের সামনে তার গাড়িবহরে হামলার ঘটনা ঘটে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত