প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আব্দুন নূর তুষার : যে কাজে আপনি বেতন পান না, সেটা কি কাজ নয়? কাজ মানে কি কেবল আয় হয়, এমন কিছু?

আব্দুন নূর তুষার : যে কাজে আপনি বেতন পান না, সেটা কি কাজ নয়? কাজ মানে কি কেবল আয় হয়, এমন কিছু? মানুষ নিজেকে বেকার বলে। এই বেকারত্ব হলো অর্থনীতির ভাষায় বেকারত্ব। সে হিসেবে দেশের অর্ধেক মানুষ বেকার। মেয়েদের সাংসারিক কাজে বেতন নেই। আমার-আপনার অনেকের মায়েরা হোমমেকার নামে একটা পদবি পেয়েছেন, যেটাকে আগে বলতো হাউজওয়াইফ। তাদের কাজে বেতন ছিলো না, তাই বলে তারা কি সব বেকার ছিলেন? আমার কাছে বেকারত্ব হলো একদম কর্মবিহীন থাকা। আপনি যদি কোনো অবদান না রাখেন, তবেই আপনি বেকার। এদেশে বেকার একসময় আরও বেশি ছিলো। কিন্তু মানুষ কাজ ছাড়া থাকতো না। কিছু না করলেও বাড়ির সামনে একটা গাছের যত্ন নিতো। ময়লাটা পরিষ্কার করতো। ছোট ভাইবোনদের পড়াতো। পাখি পুষতো। পাড়ায় ছেলেদের-মেয়েদের দল বানিয়ে নাটক করতো। শ্রীকান্তের গল্পে ইন্দ্রনাথ কি বেকার ছিলো? দিলুর গল্পের শাহজাহান ভাই? মামার বাড়ির বরযাত্রীর মামা? লেবু মামার সপ্তকাণ্ডের লেবু মামা? অনেকে হয়তো এসব বইয়ের নামই শোনেননি। আমরা নিজেকে বেকার ভাবি, কারণ আমরা ভাবি সবকাজে পয়সা আসবে। সব কাজে পয়সা আসে না, দরকারও নেই। নিজেকে প্রশ্ন করেন, শেষ কোন কাজটি করে আপনি খুব শান্তি পেয়েছেন, গর্ব অনুভব করেছেন?
কোন কাজটিতে আপনার স্বার্থ ছিলো না? স্বার্থপর না হয়ে পরস্বার্থের কাজকে নিজের ভাবে না যে সমাজ, সেই সমাজে ঘর পরিষ্কার রাখা যায় না। কারণ নিজের বাড়ির দরোজায় ময়লা জমে থাকে। সেই ময়লা পায়ে নিয়ে আপনি নিজের মার্বেল পাথরের মেঝে ময়লা করেন। আর ফ্লোর ক্লিনার দিয়ে সারাদিন মার্বেলের যত্ন নেন। আপনার দেয়ালে জয়নুল আবেদীনের কাক, রনবীর ডাস্টবীন ও টোকাই ঝোলে আর দরোজায় ক্ষুধার্ত মানুষের হাত অপেক্ষা করে। আপনার আঙুলে নীলা চুনি পান্না আকিক দিয়ে আপনি রাহু কেতু হিসাব করে ভাগ্য তৈরির চেষ্টা করেন আর বাইরে পাথর ভাঙে মানুষ। যে পাথরের ওপরে আপনার রেঞ্জ, রোভার, অডি আর বেন্টলে মোলায়েম ভঙ্গিতে চলে। বেকার আসলে আপনারা যারা অনেক আয় করেন। কোনো কাজ করেন না। পাথরের মূল্যে নয়, মানুষের মূল্যে জীবনকে যাচাই করুন। জীবন বদলে যাবে। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত