প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঘুড়ি উৎসবের নাটাই হাতে উৎফুল্ল হাজী সেলিমের ভিডিও ভাইরাল(ভিডিওসহ)

ডেস্ক রিপোর্ট : বিভিন্ন সময়ে নানা কারণে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হন সংসদ সদস্য হাজী সেলিম। এবারও ঢাকার ঐতিহ্যবাহী ঘুড়ি উৎসব সাকরাইন উপলক্ষে দুই দিন আগেই নাটাই হাতে আনন্দ উৎফুল্লতায় মেতে উঠেন পুরান ঢাকার এই সংসদ সদস্য।

আজ বুধবার (১৩ জানুয়ারি) এমনই একটি ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। যে ভিডিওটি গতকাল মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৮ টা ৫৩ মিনিটে নিজস্ব ফেসবুক টাইমলাইনে পোস্ট করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ মোহাম্মদ আলমগীর। ভিডিওটিতে এই সংসদ সদস্যকে দেখে অনেকেই ইতিবাচক মন্তব্য করছেন। আরটিভি

ডিএসসিসির আয়োজনে আজ জানুয়ারি ঘুড়ি উৎসব
আকাশ রাঙাতে প্রথমবারের মতো ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ঘুড়ি উৎসব। ‘এসো ওড়াই ঘুড়ি, ঐতিহ্য লালন করি’ স্লোগানে প্রথমবারের মতো আয়োজিত এই উৎসব একযোগে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৭৫টি ওয়ার্ডে আয়োজন করা হবে। আগামীকাল ১৪ জানুয়ারি দুপুর ২টা থেকে শুরু হয়ে উৎসব চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত। আয়োজন সফল করতে ইতোমধ্যে প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

করপোরেশনের ক্রীড়া ও সংস্কৃতি বিষয়ক স্থায়ী কমিটির উদ্যোগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৭৫টি ওয়ার্ডের সাধারণ আসনের ৭৫ জন কাউন্সিলর এবং সংরক্ষিত আসনের ২৫ জন মহিলা কাউন্সিলরকে ক্রীড়া ও সংস্কৃতি বিষয়ক স্থায়ী কমিটির পক্ষ হতে ১০০টি করে করে ঘুড়ি সরবরাহ করা হবে। পরে কাউন্সিলরগণ সেসব ঘুড়ি সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের জনসাধারণের মাঝে বিলি করবেন, যারা কমিটি নির্ধারিত মাঠ কিংবা বাড়ির ছাদে অবস্থান নিয়ে শুন্যে ঘুড়ি ওড়াবেন।

উৎসব আয়োজন প্রসঙ্গে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ক্রীড়া ও সংস্কৃতি বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ২৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ মোকাদ্দেস হোসেন জাহিদ বলেন, সাকরাইন উৎসব পুরান ঢাকার ঐতিহ্য। কালের পরিক্রমায় এই ঐতিহ্য পুরান ঢাকার গণ্ডি ছাড়িয়ে দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। কিন্তু যান্ত্রিক জীবনের বাস্তবতায় আমরা অনেকেই ভুলতে বসেছি, সাকরাইন উৎসব- আমাদের ঐতিহ্যের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। তাই, ঢাকার ঐতিহ্য লালন, সংরক্ষণ এবং প্রসারে ডিএসসিসির মেয়র মহোদয় যে রূপরেখা ঘোষণা করেছেন সে ধারাবাহিকতায় আমরা প্রথমবারের মতো এই ঘুড়ি উৎসবের আয়োজন করতে যাচ্ছি। যদিওবা উৎসবে আমরা কাউন্সিলরদের কাছে ১০০ করে মোট ১০ হাজার ঘুড়ি সরবরাহ করব এবং সেসব ঘুড়ি আগ্রহী লোকজনের মাঝে বিতরণ করা হবে, তারপরও কেউ বাদ পড়লে সংশ্লিষ্ট আগ্রহী ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গ নিজ বাড়ির ছাদ থেকে নিজের ঘুড়ি নিয়ে এই উৎসবে অংশ নিতে পারবেন। এই উৎসব সকলের জন্য উন্মুক্ত, সার্বজনীন।

সাকরাইন উৎসব-১৪২৭ আয়োজন প্রসঙ্গে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, ঐতিহ্যের সুন্দর, সচল, সুশাসিত ও উন্নত ঢাকা গড়ে তোলার যে রূপরেখা মেয়র মহোদয় ঘোষণা করেছেন, তারই আলোকে এবার পৌষ সংক্রান্তিতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন প্রথমবারের মতো করপোরেশনের ৭৫টি ওয়ার্ডে সমন্বিতভাবে পৌষ সাকরাইন তথা ঘুড়ি উৎসব আয়োজন করতে যাচ্ছে। এ কার্যক্রমে আমাদের সম্মানিত কাউন্সিলরবৃন্দ ওতপ্রোতভাবেভাবে সম্পৃক্ত থেকে একটি সফল আয়োজনের লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করছেন। আমরা বিশ্বাস করি, এই আয়োজন পুরান ঢাকার ঐতিহ্য সংরক্ষণ ও ফিরিয়ে আনতে একটি মাইলফলক হিসেবে ভূমিকা রাখবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত