প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গরুর চামড়ার মাদুর নিয়ে বিতর্ক

ডয়চে ভেলে: ফ্রান্সের এক ফ্যাশন হাউসের গরুর চামড়া দিয়ে তৈরি ইয়োগার মাদুর বিক্রি নিয়ে বিতর্ক চলছে৷ ফ্যাশন হাউসটিকে ক্ষমা চাইতে বলছেন হিন্দু নেতারা৷

ফ্রান্সের ফ্যাশন কোম্পানি লুই ভুইতুন গত অক্টোবর মাসে ইয়োগা, অর্থাৎ যোগ ব্যায়াম করার একটি মাদুর বাজারে আনে৷ চড়া মূল্যের এ মাদুর তৈরিতে গরুর চামড়া ব্যবহার করে হয়েছে বলে জানা গেছে৷

ইয়োগার মাদুর তৈরিতে গরুর চামড়া ব্যবহারে আপত্তি জানিয়ে হিন্দু নেতারা বলছেন, এমন কাজ হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মনে আঘাত করবে৷ এক বিবৃতিতে সার্বজনীন হিন্দু সোসাইটির সভাপতি রাজন জেড গরুর চামড়া দিয়ে ইয়োগা মাদুর বানানোর বিষয়টি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্য ‘বেদনাদায়ক’ বলে মন্তব্য করেন৷

ইয়োগা হলো এক ধরনের ব্যায়াম যা হিন্দুসমাজের অনেকের কাছেই আধ্যাত্মিক মুক্তির উপাসনা হিসেবে বিবেচিত৷ সাধারণত মাদুরের উপর বসে করা হয় বলে ফ্যাশন সচেতন অনেকেই ইয়োগায় সুন্দর ও রুচিশীল মাদুর ব্যবহারে আগ্রহী৷

বার্তা সংস্থা এপিকে রাজন বলেন, প্রতিষ্ঠানটির এমন কোনো ব্যবসা করা উচিত নয় যা ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে, কোনো সম্প্রদায়কে আঘাত দেয় বা কোনো অধ্যাত্মিক চর্চাকে হাস্যরসে পরিণত করে৷

প্রতিষ্ঠানটিকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে রাজন আরো বলেন, ব্যবসা করার ক্ষেত্রে নৈতিক ও সামাজিক দায়বদ্ধতার বিষয়টি বিবেচনায় রাখা উচিত৷ তবে এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে কোনো বিবৃতি দেওয়া হয়নি৷

তার আগে হিন্দু দেবতা ব্রহ্মার নামানুসারে বিয়ারের নামকরণ করে সমালোচনার মুখে পড়ে বেলজিয়ামের একটি প্রতিষ্ঠান৷ সেই সময় প্রতিষ্ঠানটিকে পণ্যটির নাম পরিবর্তনের আহ্বান জানিয়েছিলেন সার্বজনীন হিন্দু সোসাইটির নেতারা৷

তাছাড়া অ্যামেরিকান প্রতিষ্ঠান ওয়েফেয়ার হিন্দু দেবতা গণেশের ছবিসহ একটি তোয়ালে বাজারে এনেছিল৷ গত আগস্ট মাসে সমিতির নেতাদের আপত্তির মুখে তোয়ালেটি বাজার থেকে সরিয়ে নেয় তারা৷ গ্রন্থনা: ফরহাদ বিন নূর

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত