প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংবাদপত্রের গুরুত্ব ও বর্তমান সংকট

নাঈমুল ইসলাম খান: [১] সংবাদমাধ্যমকে বলা হয় রাষ্ট্রের ফোর্থ এস্টেইট। একটি রাষ্ট্রে আইন বিভাগ, বিচার বিভাগ ও শাসন বিভাগ হচ্ছে রাষ্ট্রের তিন এস্টেইট বা স্তম্ভ। সেই অর্থে সংবাদমাধ্যম রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ।

[২] যেকোনো গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে চতুর্থ এই স্তম্ভের গুরুত্ব আরো বেশি।

[৩] ফোর্থ এস্টেইটের ধারণা যখন জন্ম নেয় তখন সংবাদপত্রকেই চতুর্থ স্তম্ভ মনে করা হতো। কিন্তু সাম্প্রতিক বছরগুলোতে সংবাদপত্রের প্রভাব ও প্রধান্য কিছুটা কমলেও এখনো সারা পৃথিবীতে সংবাদপত্রকে যারপরনাই মর্যাদা দেওয়া হয়।

[৪] বাংলাদেশে রেডিও, টেলিভিশন, অনলাইন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যাপক বিকাশের ফলে সংবাদপত্রের প্রসার, প্রভাব ও প্রতিপত্তি কিছুটা কমেছে মনে হলেও নীতি নির্ধারক এবং সুশীল সমাজসহ আপামর মানুষের কাছে সংবাদপত্র এখনো সর্বোচ্চ মর্যাদা ও দায়িত্বের আসনে রয়েছে।

[৫] রাষ্ট্রপরিচালনায় জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে, অনুসন্ধানী এবং বিশ্লেষণী সাংবাদিকতার জন্য সংবাদপত্র এখনো অপিনিয়ন লিডারদের কাছে সর্বোচ্চ আস্থার স্থল।

[৬] বাংলাদেশের সংবাদপত্র শিল্প প্রশাসনিক শিথিলতা, মিডিয়া লিস্টের দুর্বলতা এবং বিশেষ করে বিজ্ঞাপন ও সাপ্লিমেন্ট বিতরণে অনিয়মের কারণে ভয়াবহ সংকটে পড়েছে।

[৭] বাংলাদেশে আমরা যদি সুশাসন চাই, রাষ্ট্র পরিচালনায় সর্বক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠা করতে চাই তাহলে চার মৌলিক স্তম্ভের একটি স্তম্ভকেও নরবরে হতে দেয়া যাবে না। যেকোনো একটি স্তম্ভ দুর্বল হলে গোটা রাষ্ট্রই নরবরে হয়ে যাবে।

[৮]US President Thomas Jefferson once said, if he had to choose between ‘a government without newspapers or newspapers without a government, I should not hesitate a moment to prefer the later’

এই প্রতিবেদনের অনুলেখক : ফাহমিদা তিশা

সর্বাধিক পঠিত