প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বোরহানউদ্দিনে মা ইলিশ রক্ষায় চলছে মাইকিং ও সচেতনতামূলক সভা

মনিরুজ্জামান: [২] এরই ধারাবাহিকতায় মৎস্যজীবি,মৎস্য ব্যবসায়ী, আড়তদার ও ক্রেতাদের সচেতন করার লক্ষ্যে বিভিন্ন বাজার, বড় বড় মাছঘাট এলাকায় প্রচার প্রচারণা ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম করে যাচ্ছেন ।

[৩] এ কার্যক্রমের আওতায় শনিবার সকাল ও শুক্রবার রাতে বোরহানউদ্দিন উপজেলার বড় মানিকা ও পক্ষিয়া ইউনিয়নের স্বরাজগঞ্চ মাছঘাট এবং হাসাননগর ইউনিয়নের মির্জাকালু মাছ বাজারে ২টি পৃথক সচেতনতামূলক সভা হয়েছে।

[৪] অনুষ্ঠানে সিনিয়র উপজেলা মৎস্য অফিসার এ,এফ,এম নাজমুস সালেহীন এর সভাপতিত্বে ওই সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সাইফুর রহমান।বিশে^র মধ্যে বাংলাদেশ মৎস্য উৎপাদনে তৃতীয়।

[৫] তিনি বলেন,প্রজনন মৌসুমে এ অভয়াশ্রমে ২১ থেকে ২৪ কোটি ইলিশ মাছ নদীতে আসবে।

[৬] তিনি আরো বলেন, এটা আমাদের জাতীয় সম্পদ । তাই ইলিশের প্রজনন সুরক্ষা ও বৃদ্ধিতে নিষিদ্ধকালীন ২২দিন সকলকে সরকারি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকার আহবান জানান। এর পূর্বে তিনি জেলের সমস্যা শুনে তাদেরকে ঘাট এলাকায় সুপ্রেয় পানির ব্যবস্থায় গভীর নলকূপ স্থাপন ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা করে দিবেন বলে আশ্বাস দেন।এছাড়া রাতের আধারে খালের উভয়পাশে^ সিগন্যাল বাতি স্থাাপনের কথা ও বলেন।

[৭] উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা জানান,২ অক্টোবর এ প্রচারণা কার্যক্রম শুরু হয়েছে।চলবে১৪ অক্টোবর পর্যন্ত।

[৮] তিনি জানান, ছোট বড় ১৪টি মাছ বাজারে সচেতনামূলক সভা হবে।১৭টি স্পটে ব্যানার সাটানো হয়েছে। শনিবার থেকে উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজার ও মেঘনা-তেতুলিয়া নদীর ঘাট এলাকায় মাইকিং শুরু করা হয়েছে।

[৯] উল্লেখ্য আগামী ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ২২ দিন সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণ, মজুদ, ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন, বাজারজাতকরণ, বহন সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একই সাথে ১৭২ টি উপজেলার সকল নদীতে সকল ধরণের মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সম্পাদনা: জেরিন

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত