প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অরণি সেমন্তি খান: কেন ধর্ষকের সঙ্গে প্রশাসন, আওয়ামী লীগ থাকে?

অরণি সেমন্তি খান: শুধু ধর্ষণ কেন, বাংলাদেশের যেকোনো নিপীড়নের সঙ্গে ক্ষমতার সম্পর্ক আছে। সেই ক্ষমতা রাজনৈতিক হয়, সামাজিক হয়, বয়সের হয়, শক্তির হয়। বাংলাদেশে আজকে যে অনাচার, ধর্ষণের মহামারি (সনজিত চন্দ্রের ভাষায় মেগাসিরিয়াল), গুমের রাজ্য, ক্রসফায়ারের রাজ্য এসব কিছুর পেছনে আছে ক্ষমতার দাপট। এই দাপটে ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক টিভিতে গিয়ে বলতে পারে যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে জসীম উদ্দীন মানিক নামে কেউ ধর্ষণ করে উদযাপন করেনি। এই দাপটের উৎস কোথায়? একটু দেখি তাহলে। এইটা একটা প্রব্লেম ট্রি বা সমস্যা গাছ। এই গাছ আমাদের সমস্যার উৎস খুঁজে দেবে কিন্তু এই গাছটাকে আমাদের ৫ বার জিজ্ঞেস করতে হবে, কেন?
আমাদের সমস্যা কি ধর্ষণ,যৌন নিপীড়ন?

[১] ধর্ষণ কেন হয়? কারণ ধর্ষক ধর্ষিতার মতামতকে আগ্রাহ্য করে তার যৌন লালসার প্রয়োগ ঘটায়। [২] ধর্ষক কেন মতামত আগ্রাহ্য করতে পারে? কারণ সে জানে যে একজন নারীকে মতামতের বিরুদ্ধে ধর্ষণ করলেও তার বিচার হবে না। [৩] কেন ধর্ষকের বিচার হবে না? কারণ ধর্ষকের সাথে আছে দেশের প্রশাসন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। [৪] কেন ধর্ষকের সঙ্গে প্রশাসন, আওয়ামী লীগ থাকে? কারণ এই ধর্ষকেরাই এদের হয়ে ভোট চুরি করে দেয়। [৫] কেন এই ধর্ষকেরা ভোট চুরি করে দেয়? কারণ এই প্রশাসন, সরকার, আওয়ামী লীগের জনগণের ভোটে নির্বাচিত হতে পারে না। আশা করি উত্তরটা পেয়ে গেছেন, ধর্ষণের সমস্যার উৎস কোথায়। ভোট চোরদের প্রতিহত করুন। নিজের অধিকার রক্ষা করুন। ধর্ষণ, যৌন নিপীড়ন কমে আসবে। না হলে সুবর্ণ চর, এমসি কলেজ, এখলাসপুর কাল আপনার এলাকাও পরিণত হবে ধর্ষকদের অভয়ারণ্যে। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত