প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইয়েমেনে পরাজিত সৌদি বাদশাহ সালমান প্রলাপ বকছেন: ইরান

রাশিদুল ইসলাম : [২] সৌদি বাদশাহ সালমান জাতিসংঘে দেয়া ভাষণে ইরানের বিরুদ্ধে মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির অভিযোগ করেছেন তাকে রিয়াদের যুদ্ধাপরাধসহ অন্যান্য অপরাধযজ্ঞ ধামাচাপা দেয়ার অপচেষ্টা বলে মন্তব্য করেছে তেহরান। ইরান বলেছে, ইয়েমেনে একের পর এক রাজনৈতিক ও সামরিক পরাজয়ের সম্মুখীন হয়ে সৌদি রাজা এখন প্রলাপ বকতে শুরু করেছেন। ফারস

[৩] ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে বলেছেন, সৌদি আগ্রাসী বাহিনী ইয়েমেনের নিরস্ত্র জনগণের ওপর বিগত পাঁচ বছরেরও বেশি সময় ধরে যে ভয়াবহ হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে সে সম্পর্কে বাদশাহ সালমান কোনো মন্তব্য করেননি। আলে সৌদ শাসক আসলে ইয়েমেনের নারী ও শিশুদের বিরুদ্ধে তার নিজ দেশের যুদ্ধাপরাধ ধামাচাপা দিতেই ইরানের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙ্গুল তুলেছেন।

[৪] ইরানের এই মুখপাত্র বলেন, সৌদি আরব হচ্ছে তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর আদর্শিক চিন্তাধারার উৎস এবং এই সৌদি সরকারই এসব সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর প্রধান পৃষ্ঠপোষক। যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানবিরোধী ‘সর্বোচ্চ চাপ’ প্রয়োগে সহযোগিতা করা, ইসরায়েলকে ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে আগ্রাসনে সার্বিক পৃষ্ঠপোষকতা এবং ইহুদিবাদীদেরকে হাজার হাজার কোটি ডলার ঘুষ দেয়ার পরও আলে সৌদ সরকার নিজের জন্য এতটুকু সম্মান অর্জন করতে পারেনি বরং আরব দেশগুলোর কাছে ধিকৃত ও নিন্দিত হয়েছে।

[৫] এদিকে জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত মাজিদ তাখত রাভাঞ্চি তার দেশের বিরুদ্ধে সৌদি বাদশাহর অভিযোগ নাকচ করে বলেন ওয়াবি মতাদর্শের কারণেই বিশে^ ভয়ঙ্কর আইএএস ও আল-কায়েদা সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সৃষ্টি হয়েছে। ইরানের বিরুদ্ধে সাদ্দাম হোসেনকে টানা ৮ বছর আগ্রাসনে পেট্রো ডলার দিয়ে পৃষ্ঠপোষকতা করেছে সৌদি আরব।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত