প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পটিয়া-কর্ণফুলীতে ৬ মাসে পিডিবির ৮০ মামলা

মোহাম্মদ শাহজাহান: [২] চট্টগ্রামের পটিয়া-কর্ণফুলীতে বিদ্যুৎ, চুরি, অবৈধ সংযোগ বকেয়া বিলসহ নানা অপরাধে গত ৬ মাসে ৮০টি মামলা দায়ের করেছে পিডিবি। এ সময় ২০ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়। বিদ্যুৎ চুরির অভিযোগে পরিচালিত অভিযানে প্রমাণ পাওয়ায় কর্ণফুলী উপজেলার চরপাথরঘাটা ইউনিয়নের আবদুর রাজ্জাক মেম্বারকে ৪ লাখ ৬০ হাজার জরিমানা করা হয়।

[৩] এছাড়া বিদ্যুৎ সংযোগ না দিয়ে অবৈধভাবে বিদ্যুৎতের ব্যবহার করার পটিয়া ক্লাবের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে নোটিশ প্রদান করেছেন পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী নোটিশে বিদ্যুৎতের অবৈধ ব্যবহার বন্ধ করে নিয়মিত হিসাব চালুর মাধ্যমে বৈধ সংযোগ নেয়ার জন্য বলা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার পদাধিকার বলে পটিয়া ক্লাবের সভাপতি।

[৪] পিডিবি সূত্রে জানা যায়, বর্তমান নির্বাহী প্রকৌশলী পটিয়ায় যোগদানের পর বকেয়া বিদ্যুৎতের বিল আদায় ও অবৈধ সংযোগের বিরুদ্ধে অভিযান জোরদার করা হয়েছে। অভিযানের অংশ হিসেবে বেশকিছু টমটম রিক্্রাার গ্যারেজ, ক্ষুদ্র শিল্প বকেয়া বিদ্যুৎ বিল ও অবৈধ সংযোগের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয়। ৮০টি মামলার মধ্যে পটিয়ায় ১৫টি ও কর্ণফুলী এলাকায় ৫৫টি মামলা ও জরিমানা করা হয় ।

[৫] অন্যান্য অপরাধে মামলাগুলো দায়ের করা হয়েছে। এদিকে গ্রাহকদের সুবিধা আরো বাড়ানোর লক্ষে পটিয়া ও শিকলবাহা ৩৩/১১ মেগাওয়াটের পৃথক দুটি ট্রান্সফরমার স্থাপন করা হয়েছে। শিকলবাহায় চালু করা হয়েছে নতুন ৬টি ব্রেকার. জুলধায় ১৬/২০ এমবিএ ৩৩/১১ ট্রান্সফরমার স্থাপন করা হয়েছে। শিকলবাহায় নতুন ব্রেকার স্থাপনের ফলে গ্রাহকরা বাড়তি সুবিধা পাবেন। এতোদিন জরজীর্ণ ব্রেকারের কারণে নানা ধরনের সমস্যার সন্মুখীন হতে হতো এসব সঞ্চালন লাইনের সাথে যুক্ত গ্রাহকদের।

[৬] পিডিবি পটিয়া বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ ইসমাঈল জানিয়েছেন, অভিযান অব্যাহত আছে । রিক্সার গ্যারেজ চুরি করে বিদ্যুৎ ব্যবহারের অভিযোগে হাতেনাতে প্রমাণ মেলায় কর্ণফুলী উপজেলার চরপাথরঘাটা ইউনিয়নের আবদুর রাজ্জাককে বেশি জরিমানা করা হয়েছে।

[৭] এছাড়া কর্ণফুলী উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বানাজা বেগমের কাছে প্রায় ৪ লাখ টাকা বকেয়া আদায়ে নোটিশ প্রদান করা হয়। সে সাথে তাঁর রিক্সার গ্যারেজে থ্রি ফেজ মিটার স্থাপন করে দেয়া হয়েছে। তিনি নোটিশ পাওয়ার পর বকেয়া থেকে কিছু বিল পরিশোধ করেছেন। নির্বাহী প্রকৌশলী আরো জানান, পটিয়ায় ঐতিহ্যবাহী পটিয়া ক্লাবে এ পর্যন্ত বৈধভাবে বিদ্যুৎতের সংযোগ নেয়া হয়নি।

[৮] পিডিবির উদ্যোগে পটিয়া ক্লাবে ব্যবহ্নত বিদ্যুৎতের হিসাব পেতে কয়েক বছর আগে একটি মিটার স্থাপন করে দেয়া হয়। এ কারণে পটিয়া ক্লাবের সভাপতি ও পটিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা না নিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে পটিয় ক্লাবের বিরুদ্ধে।

[৯] এ ব্যাপারে পটিয়া ক্লাবের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফয়সাল আহমেদ জানিয়েছেন, তিনি পিডিবির নোটিশ এখনো হাতে পাননি । নোটিশ হাতে পেলে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। সম্পাদনা: সাদেক আলী

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত